• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৭ আগস্ট ২০১৯ ০০:৪৯:২৯
  • ১৭ আগস্ট ২০১৯ ০১:০৫:২৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘জমানো টাকা, সাজানো সংসার সব শেষ’

ছবি : সংগৃহীত

‘আমরা যুবলীগের ক্লাবঘরে আড্ডা দিচ্ছিলাম। হঠাৎ নাকে আসে পোড়া গন্ধ। কিছুক্ষণ পর আগুন ও ধোঁয়া বেড়ে যায়। যেভাবে পারছি ক্লাব থেকে বের হয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করি কিন্তু আগুন না নিভে বরং বেড়ে যায়। বাধ্য হয়ে ৯৯৯-এ ফোন করে আগুনের খবর জানাই। এরপর ফায়ার সার্ভিস আসে।’

কথাগুলো বলছিলেন মেহেদি হাসান নামে এক কিশোর।

ওই কিশোর আরো বলেন, তার মা হাজেরা বিবিকে নিয়ে শুধুমাত্র পিএসপির সার্টিফিকেট ও কিছু জামা- কাপড় নিয়ে বের হতে পেরেছে সে।

মেহেদির বাবা শেখ ফরিদ পেশায় একজন সবজি ব্যবসায়ী।

মেহেদির মা বলেন, ‘সব শেষ হয়ে গেল। দীর্ঘদিনের জমানো টাকা, সাজানো সংসার ছেড়ে খালি হাতে বের হয়ে যাই। আমার জায়গা এখন রাস্তায়। আর কিছুক্ষণ দেরি হলে হয়তো মারাই যেতাম।’

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীর মিরপুর ৭ রূপনগর থানার চলন্তিকার মোড়ে একটি বস্তিতে আগুন লাগে। তারা ওৈই বস্তির বাসিন্দা। এমন অনেক বস্তিবাসি আহাজারি করছেন, ছোটাছুটি করছেন। 

আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মিরপুর বস্তি আগুন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0229 seconds.