• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০ নভেম্বর ২০১৯ ২০:২১:৩০
  • ২০ নভেম্বর ২০১৯ ২০:২১:৩০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মানিকগঞ্জে শুল্ক ফাঁকি দেয়া তামাক বোঝাই ট্রাক আটক

ছবি : সংগৃহীত

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে তামাক বোঝাই একটি ট্রাক (কুষ্টিয়া ট ১১-০১১৫) আটক করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ২০ নভেম্বর, বুধবার ওই ট্রাক থেকে সরকারের শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধ সিগারেট তৈরির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া ১২ কার্টুন কাট র‌্যাগ (কাট টোব্যাকো) উদ্ধার ও দুইজনকে আটক করা হয়।

রাজস্ব বোর্ড জানিয়েছে, কুষ্টিয়ার গ্লোবাল লিফ টোব্যাকো কোম্পানি থেকে মানিকগঞ্জের আরিচার বিউটি টোব্যাকো কোম্পানির কাছে তামাক নিয়ে যাওয়ার সময় পাটুরিয়া ফেরি ঘাট থেকে ট্রাকটি আটক করা হয়। এতে প্রায় দুই মেট্রিক টন অবৈধ সিগারেট তৈরীর কাঁচামাল (কাট টোব্যাকো) ছিল। 

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আহমেদ সোলাইমান বলেন, ‘আগামীকাল ভ্যাট আইনের আওতায় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করবে রাজস্ব বোর্ড। এই মামলায় যে জরিমানা করা হবে তা দিয়ে আটককৃতদের ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।’ 

গত ২৯ আগস্ট রাজধানীর ওয়ারী থানা এলাকা থেকে এই একই কোম্পানির (গ্লোবাল লিফ টোব্যাকো) কাট টোব্যাকোসহ ত্রিপল দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় শুল্ক ফাঁকি দেয়া তামাক বোঝাই একটি ট্রাক জব্দ করেছিলো র‌্যাব-৩। পরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরে হস্তান্তর করা হয়।

সরকারের কঠোর ব্যবস্থা ও পদক্ষেপের পরও গ্লোবাল লিফ টোব্যাকোর মতো অবৈধ কোম্পানিগুলো এ কাজ করে চলেছে। ফলে রাজস্ব ফাঁকি দেয়া এসব কোম্পানির বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা না নিলে সরকারের রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে না মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য, সরকারের মোট রাজস্ব আয়ের অন্তত ১০ শতাংশ তামাক খাত থেকে আসে। বর্তমানে দেশের বাজারে প্রায় অর্ধশতাধিক অবৈধভাবে উৎপাদিত বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সিগারেট রয়েছে। আটককৃত এসব শুল্ক ফাঁকি দেয়া কাট টোব্যাকো অবৈধ সিগারেট উৎপাদনেই ব্যবহৃত হয়। ফলে সরকার বছরে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মানিকগঞ্জ শুল্ক তামাক

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0617 seconds.