• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৮:৪৩:৪৯
  • ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৮:৪৩:৪৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ডাকাতদের গোলাগুলিতে নিহত ১

রোহিঙ্গা ক্যাম্প [ফাইল ছবি]

কক্সবাজারের টেকনাফে একটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ডাকাত দলের হামলা ও গুলিবর্ষণে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এসময় এক কিশোরসহ দুই রোহিঙ্গা গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। 

গতকাল ৭ ডিসেম্বর, শনিবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার হ্নীলা নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির পরিচয় এখনো জানা যায়নি। আহতরা হলেন, ক্যাম্পের ‘এ’ ব্লকের ৬২৭ নং শেডের বাসিন্দা হাফেজ আহমদের ছেলে মো. রশিদ ওরফে ফয়সাল (১৩) এবং ৬৭৭ নং শেডের বাসিন্দা মৃত ছৈয়দ হোছন ওরফে লাল বুইজ্জার ছেলে শামসুল আমিন (৩২)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোহিঙ্গা ডাকাত জাকির ও ইতিপূর্বে আইনশৃংখলা বাহিনীর সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত শীর্ষ ডাকাত নুরুল আলমের অনুসারীরা গতকাল গোলাগুলিতে জড়িয়ে পড়ে। 

গোলাগুলি থামার পর আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় ও দুই জনকে আহত অবস্থায় দেখতে পান।

আহত মো. রশিদ ও শামসুলকে উদ্ধার করে ক্যাম্পের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে নেয়া হয়। 

রোহিঙ্গারা জানান, গুলিবিদ্ধ শামসুল আমিন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত শীর্ষ ডাকাত নুরুল আলমের ছোট ভাই। আর নিহত ব্যক্তি তাদের প্রতিপক্ষ জাকির গ্রুপের সদস্য বলে দাবি করেন তারা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘রাত ৯টার দিকে গোলাগুলির শব্দ শুনেছি। তবে বিস্তারিত তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি।’ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সংলগ্ন পাহাড়ে প্রায় সময় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে বলেও জানান তিনি।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি (অপারেশন) রাকিবুল হাসান এ সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়।’

মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

বাংলা/এসএ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0656 seconds.