• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ২২:৩৫:৫৯
  • ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ২২:৩৫:৫৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

উইঘুর মন্তব্যে ওজিলের প্রতি সমর্থন ওয়েঙ্গারের

ছবি : সংগৃহীত

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব আর্সেনালের তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান ফুটবলার মেসুত ওজিলের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ক্লাবের সাবেক কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার। উইঘুর মুসলিমদের প্রতি চীনা কর্তৃপক্ষের নির্যাতনের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ জানানোর পর চীনাদের রোষের মুখে পড়েন আর্সেনালের এই মিডফিল্ডার।  

আর্সেনালের সাবেক কোচ ওজিলের মত প্রকাশের স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।  তিনি বলেন, ‘ অন্যান্য সকলের মতই মেসুত ওজিলেরও মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে।  সে যা বলেছে তা তার নিজস্ব মত। সে আর্সেনালের হয়ে মত প্রকাশ করেনি। ’

প্রসঙ্গত, ১৩ ডিসেম্বর শুক্রবার মেসুত ওজিল ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা একটি বার্তার মাধ্যমে চীনের শিংজিয়াং প্রদেশে বসবাস করা মুসলিম সংখ্যালঘুদের উপর চীন সরকারের নির্যাতনের প্রতিবাদ জানান। উইঘুরদের উপর নানা নির্যাতন সত্ত্বেও মুসলিম দেশগুলোর নীরবতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন জার্মান এই মিডফিল্ডার।  

ধর্মীয় কারণে উইঘুরদের উপর চীন নির্যাতন করছে উল্লেখ করে ওজিল লিখেন, ‘ তারা(চীন ) তাদের কোরআন পুড়িয়ে ফেলছে। মসজিদ বন্ধ করে দিচ্ছে।  তাদের স্কুল নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে।  তাদের ধর্মীয় নেতাদের হত্যা করছে।  পুরুষদের জোর করে শিবিরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে এবং চীনা পুরুষদের বিয়ে করতে বাধ্য করা হচ্ছে নারীদের।  কিন্তু মুসলিম বিশ্ব নীরব।  তারা কোন হৈ চৈ করছে না। তারা (মুসলিমরা) তাদের পরিত্যাগ করেছে।  তারা কি জানে না, নিপীড়নে সম্মতি দেয়ার অর্থ হলো নিজেকেই নিপীড়নের শিকার করা। ’

ওজিলের মন্তব্যের ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখায় চীন।  এই ঘটনার পর আর্সেনাল চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সিনা ওয়েইবোতে জানায়, উইঘুর নিয়ে ওজিলের মন্তব্য একান্তই তার নিজস্ব মতামত।  আর্সেনাল কোন রাজনৈতিক মত পোষণ করে না।

তবে আর্সেনালের এই বক্তব্যে খুশি হয়নি চীনা কর্তৃপক্ষ। কারণ ১৫ ডিসেম্বর রবিবার আর্সেনাল এবং ম্যানচেস্টার সিটির মধ্যে অনুষ্ঠিত ফুটবল ম্যাচটি চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভিতে দেখানোর কথা থাকলেও পরবর্তীকালে তা স্থগিত করা হয়।  এর পরিবর্তে  সেদিন অন্য একটি খেলা প্রচার করা হয়।

এছাড়া চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ওজিলের যেসব অ্যাকাউন্ট ছিল তাও বন্ধ করে দেয়া হয়।  এমনকি তার চীনা ভক্তরাও তার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। জার্মান এই ফুটবলারের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আর্সেনালের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে চীনারা।

উল্লেখ্য, উইঘুর হলো চীনের শিনজিয়াং প্রদেশে বাস করা সংখ্যালঘু মুসলিম জনগোষ্ঠী।  দীর্ঘদিন ধরেই চীন সরকার এই জনগোষ্ঠীর উপর নির্যাতন নিপীড়ন চালিয়ে আসছে বলে অভিযোগ করে আসছেন মানবাধিকার কর্মীরা। এমনকি তাদের জোর করে প্রশিক্ষণ শিবিরে নিয়ে রাখা হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। যদিও চীন বরাবরই উইঘুরদের উপর নির্যাতনের এই অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছে।

বাংলা/এফকে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0206 seconds.