• বাংলা ডেস্ক
  • ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৮:৫৭:৫৪
  • ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৮:৫৭:৫৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিক্ষোভের বছর ২০১৯

ছবি : সংগৃহীত

সহিংস বিশ্বের বাইরে ছিল মানুষের বাঁচার আকুতি। লড়াই চলেছিল কর্তৃত্ববাদী সরকারগুলোর বিরুদ্ধে, বৈষম্যের বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে, পরিবেশগত আগ্রাসনের বিরুদ্ধে। লড়াই অব্যাগত রয়েছে গণতন্ত্রের জন্যও। মিলবে কি মানুষের মুক্তি? এসব নিয়ে বাংলা’র আয়োজন ‘বিক্ষোভের বছর ২০১৯’।

ভারতে বিক্ষোভ

বছরের শেষদিকে এসে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে পুরো ভারতে বিক্ষোভের আগুন জ¦লছে। ধর্মীয় বৈষম্যপূর্ণ ওই আইনের বিরুদ্ধে সব ধর্মের লোকজন একত্র হয়ে আন্দোলন করছেন। এক সপ্তাতেই ঝরেছে অন্তত ২৩ প্রাণ।

বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে রাজধানী দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন শুরু হলে পুলিশ পাল্টা আঘাত করে; ক্যাম্পাস পরিণত হয় রণক্ষেত্রে।

হংকংয়ের স্থিতিশীলতায় ধাক্কা

চীনের মূলভূখণ্ডে বন্দি প্রত্যর্পণ নিয়ে প্রস্তাবিত একটি বিল বাতিলের দাবিতে জুন থেকে হংকংয়ে যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল তা এখন স্বায়ত্তশাসিত এ অঞ্চলের স্বাধিকার আন্দোলনে পরিণত হয়েছে। গণদাবির মুখে সেপ্টেম্বরেই বিলটি বাতিল করা হলেও আন্দোলন থামেনি।

নির্বাচনেও প্রভাব

হংকংয়ের স্বাধিকার আন্দোলনে লাখো মানুষ সড়কে নেমে বিক্ষোভ করছে। এ আন্দোলন সাধারণ মানুষের মধ্যে এতটাই সাড়া ফেলেছে যে নভেম্বরে এশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ এই বাণিজ্য নগরীর স্থানীয় নির্বাচনে গণতন্ত্রপন্থিরা বিশাল জয় পেয়েছেন।

উত্তপ্ত হচ্ছে ইরাক

সাবেক স্বৈরশাসক সাদ্দামের আমল থেকেও ‘খারাপ সময়ের’ মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন ইরাকিরা। দুর্নীতি, বেকারত্ব, সরকারের ওপর ইরানের প্রভাব ইত্যাদি নানা অভিযোগ নিয়ে অক্টোবর থেকে সাধারণ মানুষ সড়কে নেমে বিক্ষোভ করছে। বিক্ষোভ দমনে সরকারের নৃংসতায় এরইমধ্যে ৪৬০ মানুষ নিহত এবং ২৫ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন।

বৈরুতে সংহতির মুষ্টি

জ্বালানি ও তামাক পণ্যের ওপর বাড়তি করারোপ এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে লেবাননের রাজধানী বৈরুতে অক্টোবরে যে আন্দোলন শুরু হয় তা থামাতে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান সাদ হারিরি। কিন্তু পদ থেকে সরে গেলেও হারিরি ক্ষমতার কেন্দ্রে থেকে যাওয়ায় বিক্ষোভ চলছে।

ইরানে বিক্ষোভ

বিশ্বের বৃহৎ তেল উৎপাদনকারী দেশ ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর নিষেধাজ্ঞার কারণে নভেম্বর থেকে দেশটিতে জ¦ালানি তেলের ওপর রেশনিং শুরু হয়। পেট্রোলের দাম প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে গেছে। যার বিরুদ্ধে ২১টি নগরীতে সহিংস বিক্ষোভ হয়। বিক্ষোভে হাজারের বেশি মানুষকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি যুক্তরাষ্ট্রের।

ক্ষমতার লড়াই

এপ্রিলে সুদানের ক্ষমতা থেকে ওমর আল-বশিরকে উৎখাতের পর থেকেই দেশটির সেনাবাহিনী ও গণতন্ত্রপন্থিদের মধ্যে ক্ষমতার কেন্দ্রে যাওয়ার লড়াই চলছে। যাতে কয়েক ডজন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

রঙিন বিক্ষোভ

চলমান রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ব্যবস্থা নিয়ে উদ্বেগ এবং আরো উন্নত স্বাস্থ্য সেবা, অবসর ভাতা এবং শিক্ষা ব্যবস্থার দাবিতে দুই মাস আগে চিলিতে বিক্ষোভ শুরু হয়। তবে বিক্ষোভে এখনো নৃশংসতার খবর পাওয়া যায়নি।

স্বাধীনতার লড়াই

স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল বার্সেলোনা বহুদিন ধরেই স্বাধীনতা চাইছে। স্বাধীনতা প্রশ্নে গণভোটের আয়োজন হলেও কেন্দ্র সরকারের কঠোর হস্তক্ষেপে তা ভ-ুল হয়ে যায়। মাদ্রিদ সরকারের দমনের বিরুদ্ধে কাতালুনিয়ায় বিক্ষোভ তাই নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে।

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিক্ষোভ

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0702 seconds.