• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ১৫ জানুয়ারি ২০২০ ১৩:১২:৪৬
  • ১৫ জানুয়ারি ২০২০ ১৩:১২:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ

ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের মিশন শুরু করতে যাচ্ছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। ১৯৯৬ সালে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের এ ম্যাচে আজ ১৫ জানুয়ারি, বুধবার বিকাল ৫টায় মুখোমুখি হবে দুই দল। 

ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে বিটিভি ও আরটিভি। এছাড়া খেলা দেখা যাবে অনলাইন চ্যানেল মাইকুজুতে।

এ টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি দুই বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মালয়েশিয়া। গতবার এই আসরের শিরোপা জিতে নেয় শক্তিশালী ফিলিস্তিন।

বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে মুজিববর্ষের এ আয়োজনের শুরুটা রঙিন করতে চায় বাংলাদেশ। গতবারের আসরে ফিলিস্তিনিদের কাছেই ২-০ গোলে হেরে সেমি-ফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল স্বাগতিকরা। তবে এবার দৃশ্যপট খানিকটা ভিন্ন। জাতীয় দলের মাত্র ছয় ফুটবলার নিয়ে বঙ্গবন্ধু কাপ খেলতে এসেছে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৬ নম্বরে থাকা ফিলিস্তিন।

মাত্র চার দিনের প্রস্তুতি নিয়ে এই টুর্নামেন্টে খেলতে এলেও শিরোপা ধরে রাখার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ফিলিস্তিনের তিউনিশিয়ান কোচ মারকাম দাবুব। 

ফিলিস্তিনের তুলনায় ৮১ ধাপ পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ অবশ্য তাদের সাম্প্রতিক পারফর্মেন্সের কারণে আত্মবিশ্বাসী। সে আত্মবিশ্বাস আরো বাড়াতে শক্তিশালী ফিলিস্তিনকে হারাতে চায় জেমি ডে’র দল। তবেই সেমিতে খেলাটা নিশ্চিত হয়ে যাবে। 

গতকাল ১৪ জানুয়ারি, মঙ্গলবার বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে বলেন, ‘আমাদের প্রস্তুতি ভালো। গত কয়েকদিন অনুশীলনে ছেলেরা ভালো করেছে। তবে জীবন ও বাদশা অসুস্থতার কারণে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছে। প্রথম ম্যাচে এই দুজনের পরিবর্তে অন্যদের খেলানো হবে।’

অবশ্য অন্যদের ওপর ভরসা আছে কোচের। তিনি বলেন, ‘আশা করি যারা আছে তারা ভালো করবে। আমরা প্রতিযোগিতার দিকে তাকিয়ে। আমরা জানি টুর্নামেন্টটা অনেক কঠিন। তারপরো সবাই খুব আত্মবিশ্বাসী। ম্যাচ নিয়ে সবাই ইতিবাচক।’

২০১৬ সালের আগে এই আসরে অংশ নিতে জাতীয় দলের বদলে দ্বিতীয় সারির দল বা কোন ক্লাবেই সে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতো। কিন্তু ২০১৮ সালের টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর মধ্যে একমাত্র ফিলিস্তিন ছাড়া বাকি সকল দেশের জাতীয় দলই অংশ নেয়। 

এবারের আসরে দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে অংশ নিচ্ছে ৬টি দেশ। গ্রুপ ‘এ’-তে স্বাগতিক বাংলাদেশের সঙ্গী বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন ও শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপে খেলবে তিন আফ্রিকান দেশ বুরুন্ডি, সিশেলস ও মরিশাস। প্রতি গ্রুপের সেরা দুই দল সেমি-ফাইনালে খেলবে। সেই দুই ম্যাচের জয়ী দুই দল ২৫ জানুয়ারি মুখোমুখি হবে ফাইনালে।

গ্রুপপর্বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৯ মার্চ নিজেদের শেষ ম্যাচটি খেলবে বাংলাদেশ। সবগুলো খেলাই অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে।

এদিকে টুর্নামেন্টের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান কে-স্পোর্টসের অনলাইনসহ টেলিকমিউনিকেশন (গ্রামীণ, বাংলালিংক ও এয়ারটেল) অ্যাপসের মাধ্যমে সম্প্রচার করবে। বাংলাদেশ বেতারেও সম্প্রচারিত হবে সব খেলার ধারা বিবরণী।

বাংলা/এসএ

 

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0207 seconds.