• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২১ জানুয়ারি ২০২০ ১০:০৮:৪৯
  • ২১ জানুয়ারি ২০২০ ১১:৩৭:২৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

দেশে সাড়ে ৬৭ লাখ নতুন ভোটার

ছবি : সংগৃহীত

ভোটার তালিকায় নতুন করে যুক্ত হয়েছে ৬৭ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪১ জন ভোটার। আর সারা দেশে মোট ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৯৬ লাখ ৬ হাজার ১৮৭ জন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় এই সংখ্যা ছিলো ১০ কোটি ৪২ লাখ ৪০ হাজার ৮২ জন। ভোটারদের এ খসড়া তালিকা প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

২০ জানুয়ারি, সোমবার নির্বাচন ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ইসি’র অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান ও জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ইসি’র প্রকাশিত হালনাগাদ খসড়া ভোটার তালিকায় স্থান পেয়েছে ৩৫৩ জন হিজড়াও। এছাড়া মারা যাওয়ায় তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৩ লাখ ৯২ হাজার ২৩৬ জন।

এ সময় তারা জানান, এবার ১৬ বছর বা তার বেশি বয়সীদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। যাদের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হয়েছে শুধু তাদের খসড়া ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বাকিদের বয়স ১৮ বছর হলে পর্যায়ক্রমে প্রকাশ করা হবে।

তারা আরো জানান, খসড়া ভোটার তালিকা নিয়ে কারো আপত্তি থাকলে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তা রিভাইজিং অথরিটির কাছে আবেদন করতে হবে। ১২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ওই দাবি-আপত্তি নিষ্পত্তি করা হবে। এরপর ১ মার্চ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে।

ইসি’র দুই কর্মকর্তা আরো জানান, ইতোমধ্যে যাদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে তাদের (১৮ বছরের কম) দ্রুততম সময়ে জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে।

এই সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গত ২৩ এপ্রিল থেকে সারা দেশে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এবারই প্রথম সারা দেশে আঙ্গুলের ছাপ ও আইরিশ নেয়া হয়েছে। হালনাগাদে ৯৫ লাখের বেশি নাগরিকের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬৭ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪১ জনের বয়স ১৮ বছরের বেশি হওয়ায় তাদের ভোটার তালিকায় রাখা হয়েছে। বাকিদের তথ্য ইসির সার্ভারে রয়েছে।

খসড়া তালিকায় যাদের নাম এসেছে তাদের মধ্যে পুরুষ ৩৫ লাখ ৮২ হাজার ১৬৩, নারী ৩১ লাখ ৭৫ হাজার ৮২৫ এবং হিজড়া ৩৫৩ জন। এবারও নারী ভোটার কম। এছাড়াও শনাক্ত করা হয়েছে ২ লাখ ৭ হাজার ৬৩৫ জন দ্বৈত ভোটার। এদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুল ইসলাম।

সাইদুল ইসলাম জানান, ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে ভোটার সংখ্যা বেড়ে ৫৩ লাখ ৬৬ হাজার ১০৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ২৭ লাখ ৫২ হাজার ৩২৩ জন, নারী ২৬ লাখ ১৩ হাজার ৪২৯ জন ও হিজড়া ৩৫৩ জন। আইন অনুযায়ী, ৩১ জানুয়ারির মধ্যে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের বিধান রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা বা বিদেশি নাগরিকেরা কেউ বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র পাবে না। এটা নিশ্চিত করতে রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্রিকের সঙ্গে নতুন অন্তর্ভুক্তদের আঙ্গুলের ছাপ মেলানোর পর ভোটার করা হচ্ছে। প্রবাসীদের ক্ষেত্রেও তা অনুসরণ করা হবে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের ভোটার করার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- ইসির যুগ্ম সচিব আবুল কাশেম, জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের পরিচালক আবদুল বাতেন, আজিজুল ইসলাম, সিস্টেম ম্যানেজার আশরাফ হোসেন প্রমুখ।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0236 seconds.