• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৪ জানুয়ারি ২০২০ ২১:৪৪:১৫
  • ২৪ জানুয়ারি ২০২০ ২১:৪৪:১৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

জেরুজালেমে মসজিদে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে ইহুদী বসতি স্থাপনকারীরা

ইসরায়েল অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের একটি মসজিদে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে ইহুদী বসতি স্থাপনকারীরা।  প্রত্যক্ষদর্শী একজন জানিয়েছেন, শুক্রবার(২৪ জানুয়ারি) অবৈধ ইহুদী বসতি স্থাপনকারীদের একটি গ্রুপ ঘৃণ্য এই কাজটি করেছে।

পূর্ব জেরুজালেমের বেইত সাফাফা শহরের বদরিয়া মসজিদে আগুন লাগানোর ঘটনাটি ঘটে।  আগুন লাগানো ছাড়াও মসজিদের দেয়ালে হিব্রু ভাষায় বর্ণবাদী কথা লিখে রাখে তারা।   

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শহরের বাসিন্দারা তাৎক্ষণিকভাবে আগুন নিভিয়ে দেয়ার ফলে এটি মসজিদের ভেতর ছড়িয়ে পড়তে পারেনি।   

কট্টর জাতীয়তাবাদী ইহুদী কোন গ্রুপ এই কাজ করে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।  মসজিদের দেয়ালে হিব্রু ভাষায় যা লেখা হয়েছে তার অর্থ হল, ‘ইহুদীদের জন্য ধ্বংস? শত্রুদেরই ধ্বংস করা হচ্ছে। ’ পশ্চিম তীরে ইহুদী বসতি স্থাপনকারীদের জন্য নির্মিত পুলিশ ফাঁড়ি ভেঙে দেয়ার প্রসঙ্গেই এই কথাগুলো লেখা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।    

এদিকে পূর্ব জেরুজালেমের উপকন্ঠে বদরিয়া মসজিদে আগুন লাগানোর ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৭ সালের আরব ইসরায়েল যুদ্ধের সময় ইসরায়েল পশ্চিম তীরের পাশাপাশি পূর্ব জেরুজালেমও অবৈধভাবে দখল করে নিয়েছিল। এই এলাকাগুলো নিজের বলে দাবি করে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ কিন্তু জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিশ্ব এই অঞ্চলগুলোর উপর ইসরায়েলি সার্বভৌমত্বের কোন স্বীকৃতি এখনো পর্যন্ত দেয়নি। 

এদিকে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ দীর্ঘদিন ধরেই ভবিষ্যত ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের অংশ হিসেবে জেরুজালেম এবং পশ্চিম তীরের উপর নিজেদের আধিকার দাবি করে আসছে।

উল্লেখ্য, পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে বাস করা ফিলিস্তিনি এবং তাদের ঘরবাড়ি এবং ভূসম্পত্তির উপর দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্নভাবে হামলা করে আসছে কট্টরপন্থী ইসরায়েলিরা। এছাড়া পূর্ব জেরুজালেমে অবস্থিত আল আকসা মসজিদে বিভিন্ন সময়ে মুসল্লিদের নামাজ পড়তেও বাধা দেয় ইসরায়েলি পুলিশ। বিশেষ করে জুমার নামাজের সময় ইসরায়েলি পুলিশ মুসল্লিদের নানাভাবে হয়রানি করে থাকে।  

বাংলা/এফকে

 

 

 

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0414 seconds.