• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৮ জানুয়ারি ২০২০ ২০:০৫:১৬
  • ২৮ জানুয়ারি ২০২০ ২০:০৫:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পাল্টে গেল ঘোষণা, ইসরায়েলি পাসপোর্টে সৌদি যাওয়া যাবে না

ইসরায়েলিরা সৌদি আরব ভ্রমণ করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান। এর আগে ইসরায়েলের সরকার কিছু সুনির্দিষ্ট শর্তের ভিত্তিতে দেশটির জনগণকে সৌদি ভ্রমণের অনুমতির কথঅ বলেছিল। 

সিএনএনের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে ইসরায়লের সংবাদমাধ্যম হারেৎজ।

প্রিন্স ফয়সাল বলেন, ‘আমাদের নীতি অপরিবর্তনীয়। ইসরায়েলের সাথে আমাদের কোনো সম্পর্ক নেই এবং বর্তমান সময়ে কোনো ইসরায়েলি পাসপোর্টধারী আমাদের দেশ ভ্রমণ করতে পারবে না।’

এর আগে ২৬ জানুয়ারি, রবিবার ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঘোষণা দেন, নতুন আইনটি ইসরায়েলিদের সৌদি আরবে ভ্রমণে অনুমতি দিবে। এর ফলে দেশটির মুসলিমদের হজ ও ওমরা বা ব্যবসা করার জন্য সর্বোচ্চ ৯০ দিন পর্যন্ত সৌদি আরবে ভ্রমণের অনুমতি পাবে। তবে ব্যবসা সংক্রান্ত ভ্রমণের ক্ষেত্রে শর্ত হিসেবে সৌদি কর্মকর্তার আমন্ত্রণপত্র থাকতে হবে।

ইসরায়েলের অধিকাংশ মুসলমানরা ধর্মীয় কারণে বহু বছর ধরে দেশটিতে যায়, সেখানে ইসলামের দুটি পবিত্র শহর রয়েছে। কিন্তু এক্ষেত্রে তারা সাধারণত বিশেষ অনুমতি বা বিদেশী পাসপোর্ট ব্যবহার করে থাকে।

প্রিন্স ফয়সাল আরো বলেন, ‘ফিলিস্তিন এবং ইসরায়েল যখন নিজেদের মধ্যে শান্তি চুক্তিতে পৌঁছবে, আমি বিশ্বাস করি এই অঞ্চলে ইসরায়েলের জড়িত থাকার বিষয়টি আলোচনার টেবিলে থাকবে।’

গত ২২ জানুয়ারি, বুধবার ইসরায়েলের স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী আরে ডেইরি এই নতুন আইনে স্বাক্ষর করেন। মন্ত্রী জানান, প্রতিরক্ষা সংস্থার সাথে যৌথভাবে এই আইন তৈরি করা হয়েছে। এর সাথে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানান, ডেইরি’র স্বাক্ষর এই পরিক্রিয়ার সর্বশেষ পর্যায় ছিলো, ‘যেটা কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রস্তুত করা হয়’।    

বাংলা/এনএস

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভিসা সৌদি আরব ইসরায়েল

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0420 seconds.