• বাংলা ডেস্ক
  • ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২১:২৩:৪৩
  • ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২০:৩১:২৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কবিতায় ফুটলো ‘ঘুণ’এ ধরা সমাজ

ছবি : সংগৃহীত

এবারের একুশে বই মেলায় বের হয়েছে মামুন অর রশীদ এর লেখা ‘ঘুণ’ কবিতার বইটি। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের যে বন্ধন, কবিতার মাধ্যমে সেগুলোর সম্পর্ক ও বৈরিতা এতো নিপুণ ও সরল ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব যে, ‘ঘুণ’ বইটি না পড়লে তা বোঝা যাবে না।

ষাটটি কবিতা দিয়ে সাজানো হয়েছে এটি। লেখাগুলোতে উঠে এসেছে পরিবার থেকে শুরু করে রাষ্ট্র পর্যন্ত  আমাদের যে ঘুণ ধরেছে তার একটা পরিষ্কার চিত্র। কবি চমৎকারভাবে লেখনিতে ফুটিয়ে তুলেছেন পরিবর্তন, অগ্রগতি ও ফাঁকিকে।

বাহ্যিক উন্নয়নই শেষ কথা নয়, মানুষ বাস করবে সমাজে। আমরা ছুটছি শুধু টাকার পেছনে, পদের পিছনে।  এক্ষেত্রে আমাদের সামাজিক বিবেক, বিবেচনা, বোধ-বুদ্ধি ও দায়িত্ব যে একেবারে তলানিতে এসে পৌঁছেছে,  কিছুই আর অবশিষ্ট নেই, তা যেন আমাদের ভেবে দেখার সময় নেই। আমাদের সন্তানদের আগে ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা জরুরি নাকি পুঁথিগত বিদায় পারদর্শী করে তোলা? পরিবারের সুখ-দুঃখে পাশে থাকা নাকি একাই ভালো থাকা? সমাজের ভালো চাওয়া নাকি নিজের স্বার্থের জন্য সমাজকে লাথি মারা? সৎ ও সাহসী থাকা নাকি শুধুই তেল দেয়া? কবির মতে, আমরা অনেক ক্ষেত্রেই উল্টো দিকে হাঁটছি। আমাদের এখনই এ নিয়ে ভাবতে হবে।

কবিতাগুলোর ভাষার গাঁথুনি যেমন শক্ত, তেমনি রয়েছে জাদুকরী ছন্দের খেলা। এ যেন আধুনিক যুগের জসীম উদ্দিন বা সত্তেন্দ্রনাথ দত্ত’র কবিতা পড়া। ভাষা প্রকাশের এতো সাদৃশ্য ও গভীরতা সমকালীন কবিদের মাঝে তেমন পাওয়া যায় না। পাঠেও রয়েছে অতীত ও  সমকালীন বিষয়--  তৃপ্তি ও বৈচিত্র্যতা।

বইটি প্রকাশ করেছে অন্বেষা প্রকাশনী। পাওয়া যাবে বই মেলার ৩৩  নম্বর প্যাভিলিয়নে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ঘুণ কবিতার বই বইমেলা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0779 seconds.