• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১১:৩৮:৫৯
  • ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১১:৩৮:৫৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অ্যান্টি-করোনাভাইরাস প্রচারণা উত্তর কোরিয়ায়

ছবি: স্ট্রেইটস টাইমস থেকে নেয়া

করোনভাইরাস সংক্রান্ত বিষয়ে প্রকাশ্যে এখনো কিছু নিশ্চিত করেনি উত্তর কোরিয়া। কিন্তু এরপরেও দেশটির কর্তৃপক্ষ ভাইরাসটি প্রতিরোধের চেষ্টা করছে। এজন্য কোয়ারানটাইন বাড়ানো ও সারাদেশে রেড ক্রস কর্মীদের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাতে খবর প্রকাশ করেছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

১২ ফেব্রুয়ারি, বুধবার, উত্তর কোরিয়ার গণমাধ্যমে ঘোষণা করা হয়, কোয়ারেন্টাইন সময়সীমা ৩০ দিন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। সমস্ত সরকারী প্রতিষ্ঠান এবং উত্তর কোরিয়ায় বসবাসরত বিদেশিরা ‘শর্তহীনভাবে’ এটি পালন করে বলে আশা করা হচ্ছে।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, ‘এই মহামারির বিস্তার আন্তর্জাতিক বিপর্যয়ের সম্ভাবনাসহ একটি গুরুতর সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

গণমাধ্যমে আরো জানায়, ইতোমধ্যে বিশ্বের অন্যতম ক্লোজ-অফ দেশ উত্তর কোরিয়া প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে বিমান ও ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। সম্প্রতি আগত বিদেশিদের জন্য সপ্তাহব্যাপী বাধ্যতামূলক কোয়ারানটাইন স্থাপন করাসহ দেশটির সরকার আন্তর্জাতিক পর্যটনকে স্থগিত রেখেছেন। এছাড়া সকল সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার কয়েকটি গণমাধ্যম উত্তর কোরিয়ায় ভাইরাস আক্রান্তদের সম্ভাব্য মৃত্যুর খবর দিয়েছে, তবে পিয়ংইয়াংয়ে অবস্থিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কর্মকর্তারা ভয়েস অফ আমেরিকাকে জানান, কোনো ঘটনা সম্পর্কে তাদের অবহিত করা হয়নি।

রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানায়, ‘সংশ্লিষ্ট অঞ্চলে’ ভাইরাস জনিত সচেতনতামূলক শিক্ষার প্রচার চালাতে এবং সম্ভাব্য লক্ষণগুলোর নিরীক্ষণের জন্য সারা দেশে উত্তর কোরিয়ার রেড ক্রস সোসাইটিকে মোতায়েন করা হয়েছে।

কেসিএনএ আরো জানায়, ‘মহামারী সম্পর্কে ধারণা লাভের জন্য বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন পদ্ধতিতে তথ্য সংগ্রহের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এছাড়া একে অপরকে সাহায্য করা ও নেতৃত্ব দেয়ার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানানো হচ্ছে।’

বাংলা/এসজে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0224 seconds.