• বাংলা ডেস্ক
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:২২:০৫
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:২২:০৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কুয়েত থেকে লাপাত্তা বাংলাদেশি এমপি পাপুল

কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল। ছবি : সংগৃহীত

কুয়েতে মানবপাচারে হাজার কোটি টাকার কারবারে অভিযুক্ত হিসেবে সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের নাম এসেছে। তবে দেশটির ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট সিআইডির অভিযান শুরুর পর বাংলাদেশের এই এমপি কুয়েত থেকে পালিয়ে যান।

মানবজমিন’এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মানবপাচারকারী সিন্ডিকেটগুলোর বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে কুয়েত সরকার। অভিযান নিয়ে কুয়েতের সংবাদ মাধ্যমগুলো সিরিজ প্রতিবেদনও করছে। সেখানে ওই এমপি ছাড়াও আরো দুজনের নাম এসেছে।

বাংলাদেশ মিশন বলছে, এমপিকে নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশের পর কুয়েত সিআইডিতে তারা তাৎক্ষণিক যোগাযোগ করেছেন। সিআইডি থেকে মারাতিয়া কুয়েতি গ্রুপ অব কোম্পানির সত্বাধিকারী কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। তিনি লক্ষীপুর-২ আসনের এমপি।

বিগত জাতীয় নির্বাচনে ওই আসনে ১৪ দলীয় জোট ও জাতীয় পার্টির সমঝোতার মাধ্যমে মনোনয়ন পেয়েছিলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোহাম্মদ নোমান। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন পাপুল। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে তিনি স্বতন্ত্র নির্বাচন করেন। পরে এক পর্যায়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান জাতীয় পার্টির প্রার্থী। আলোচনা ছিল মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পাপুল ওই প্রার্থীকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দেন।

বাংলাদেশ মিশনের হেড অব চ্যান্সারি মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান জানিয়েছেন, মানবপাচার রোধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে কুয়েত। অবৈধপথে লোক পাঠানোকেই তারা মানবপাচার বলছে।

হাই কমিশন সূত্র জানিয়েছে, সংসদ সদস্য পাপুল কুয়েতে নেই এটাও নিশ্চিত করেছে সিআইডি। তবে কুয়েতি সংবাদ মাধ্যমে একজন গেপ্তারের যে খবর বেরিয়েছে তার বিস্তারিত জানতে সিআইডিকে চিঠি দিয়েছেন বলেও জানান।

কুয়েতি সংবাদ মাধ্যমে বাংলাদেশি এমপির ব্যবসা পেতে বিশালবহুল গাড়ি উপহার দেয়ার চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। ওই এমপির প্রোফাইল এবং নির্বাচন কমিশনে দেয়া হলফনামা ঘেটে দেখা যায়, নির্বাচনী হলফনামায় তিনি পেশা ‘ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বা আন্তর্জাতিক ব্যবসা দেখিয়েছেন। তার প্রোফাইল বলছে,  কুয়েত ছাড়াও জর্ডান, ওমানে লোক পাঠান তিনি। কুয়েত আওয়ামী লীগের পৃষ্টপোষক দাবিদার কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল জাতীয় নির্বাচনে আপেল প্রতীকে নির্বাচন করেন।

কুয়েতের সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, কুয়েতের প্রতিষ্ঠিত সংবাদ মাধ্যম আল-কাবাস বৃহস্পতিবার মানবপাচার নিয়ে তার প্রকাশিত সর্বশেষ প্রতিবেদনে জানিয়েছে-বাংলাদেশি ওই এমপি সামপ্রতিক সময়ে কুয়েতে একজন মার্কিন বাসিন্দার সঙ্গে আর্থিক অংশীদারিত্ব গড়ে তোলেন। কুয়েতে আয় করা বেশিরভাগ অর্থই তিনি আমেরিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন।

সূত্রের বরাতে আল কাবাসের খবরে জানানো হয়, প্রাথমিক পর্যায়ে কুয়েতের একটি শীর্ষ প্রতিষ্ঠানে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের সুপারভাইজার হিসেবে কাজ শুরু করেন তিনি। পরবর্তীতে নিজেই প্রতিষ্ঠানটির একজন অংশীদার হয়ে ওঠেন। এরপর আর তার পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। নিজের মতো করে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করতে শুরু করেন। ওই এমপি কুয়েতে এমন বেশকিছু টেন্ডার কেনেন, যেগুলো লাভজনক ছিল না। সেগুলো কেনার উদ্দেশ্য ছিল, চুক্তিগুলোর আওতায় কুয়েতে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি কর্মী নেয়া। এসব কর্মী নেয়ার মাধ্যমে আয় করা অর্থ দিয়েই ওই টেন্ডারগুলোর অর্থায়ন করতেন তিনি। অবৈধভাবে আয় করতেন ব্যাপক অর্থ। বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়ার জন্য কুয়েতে তার প্রতিষ্ঠানটি যেন সরকারি চুক্তি পায় সেজন্য সরকারি কর্মকর্তাদের ৫টি বিলাসবহুল গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন।

আল কাবাসের প্রতিবেদনে অভিযানের মুখে কুয়েতত্যাগী সুলতান নামের অপর মানবপাচারকারীর নামে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ পেয়েছে। বলা হয়েছে, কুয়েত থেকে পালিয়ে গেলেও সুলতানের নিজের প্রতিষ্ঠানের উচ্চ-পদস্থ কয়েকজন কর্মকর্তার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে। তিনি বিপুল অর্থের বিনিময়ে সেখানে শ্রমিক নেন। এজন্য বহু দালালের ব্যবহার করেন তিনি। এসব কর্মকাণ্ডে প্রাপ্ত অর্থ কুয়েতের বাইরে একটি ব্যাংক একাউন্টে জমা রাখেন তিনি। বাংলাদেশ মিশন জানিয়েছে, সুলতানের বিষয়ে তাদের কাছেও নেতিবাচক রিপোর্ট রয়েছে। তার বাড়ি বৃহত্তর সিলেটে। সিআাইডি যাকে আটক করার কথা বলছে সে সুলতান কি-না? সেটি নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চলছে বলে বাংলাদেশ মিশনের দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এদিকে অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, সুলতানও নাকী পালিয়েছেন। তার ইউরোপের দিকে যাওয়ার কথা ঘনিষ্ঠ মহলে প্রচার ছিলো। আল-কাবাস বলছে, তারেক নামে অপর মানবপাচারকারীর খবর প্রকাশ পেয়েছে। মিশন বলছে তার বাড়ি গাজীপুরে। তিনি অনেক দিন ধরেই কুয়েত পুলিশের হাতে আছে। তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে মর্মেও খবর বেরিয়েছিলো।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0273 seconds.