• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২৩:০০:৫১
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ২৩:০০:৫১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘তুর্কি নাটক দেখতে মানা’ ফতোয়া জারি মিশরে

ছবি : সংগৃহীত

মিশরের সর্বোচ্চ ইসলামি কর্তৃপক্ষ সেদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান দর্শকদের তুরস্কের নাটক না দেখার ব্যাপারে সতর্ক করে ফতোয়া জারি করেছে। সম্প্রতি তুরস্কের পত্রিকা ইয়েনি শেফাকে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে।  
গত সপ্তাহে মিশরের ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দার আল ইফতা’র সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গ্লোবাল ফতোয়া ইনডেক্স (জিএফআই) মিশরের মুসলমানদের উদ্দেশ্যে এই ফতোয়া জারি করে।

এক বিবৃতিতে দার আল ইফতা অভিযোগ করে তুরস্ক তাদের বিভিন্ন নাটক বিশেষ করে ঐতিহাসিক নাটকের মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্যে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে।

প্রসঙ্গত, মিশরের দার আল ইফতা’র গ্লোবাল ফতোয়া ইনডেক্স মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম প্রাচীন এবং প্রভাবশালী একটি সংস্থা। এই সংস্থাটি এই অঞ্চলের মুসলমানদের জন্য ফতোয়াসহ বিভিন্ন ধর্মীয় নির্দেশনা দিয়ে থাকে।   
তাদের সাম্প্রতিক এই ফতোয়া মূলত বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় তুর্কি ধারাবাহিক দিরিলিস: আর্তুগরুলকে লক্ষ্য করেই দেয়া হয়েছে।  দার আল ইফতা তাদের বিবৃতিতে জানায়, মধ্যপ্রাচ্যে উসমানীয় সাম্রাজ্যকে পুনরুজ্জীবিত করা এবং আরব দেশগুলোর উপর নিজের সার্বভৌমত্ব ফিরে পাওয়ার উদ্দেশ্যে তুরস্ক এই ধারাবাহিক তৈরি করেছে।

তাই ধর্মপ্রাণ দর্শকদের এসব নাটক দেখা উচিত হবে না। উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যের আরব দেশগুলো এক সময় তুরস্কের উসমানীয় সাম্রাজ্যের শাসনাধীন ছিল।

জিএফআই এর দেয়া ফতোয়ায় বলা হয়, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান এবং তার অনুসারীরা মুসলমানদের কাছে এই ধারণা ছড়িয়ে দিতে চায় যে, তারাই খিলাফতের নেতা। তারা বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের দমন নিপীড়নের হাত থেকে রক্ষা করবে এবং ইসলামি শরিয়া আইন প্রতিষ্ঠিত করবে। অথচ উপনিবেশিক এই প্রচারণার আড়ালে তারা নিজেদের আসল চেহারা লুকাতে চাইছে। মূলত এর মাধ্যমে এরদোয়ান তার রাজনৈতিক লক্ষ্য হাসিলের চেষ্টা করছে।

এতে আরো বলা হয়, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বিশ্বব্যাপী তার ক্ষমতা বিস্তৃত করার জন্য যেকোন কিছুই করতে রাজি।  এমনকি এজন্য তিনি সাংস্কৃতিক এবং শৈল্পিক পণ্য ব্যবহারেও কোন দ্বিধা করছেন না।

উল্লেখ্য, আর্তুগরুল গাজি ছিলেন উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা প্রথম ওসমানের পিতা। তিনি একজন যোদ্ধা ছিলেন। দিরিলিস: আর্তুগরুল ধারাবাহিকের মাধ্যমে কীভাবে উসমানীয় সাম্রাজ্যের উত্থান ঘটেছিল তাই দেখানো হয়। এটি বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

বাংলা/এফকে 

 

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মিশর তুরস্ক

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.1682 seconds.