• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৯:০১:৫২
  • ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৯:০১:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বাইকের নেমপ্লেটে ‘সার্জেন্ট ইমরান আমার বন্ধু’

ছবি : সংগৃহীত

বাইকের নেমপ্লেটে ‘সার্জেন্ট ইমরান আমার বন্ধু’ লেখা একটি ছবি সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর ধরা খেলেন সেই বাইকার। গতকাল বুধবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার সোনারগাঁও ক্রসিংয়ে আবিরকে বাইকসহ আটক করেন ট্রাফিক সার্জেন্ট আসাদুজ্জামান জুয়েল।

সার্জেন্ট জুয়েল জানান, ওই বাইকারের নাম আবির। তিনি একজন চাকরিজীবী। আটকের পর আবিরের কাছে বাইকের পেছনের নম্বর প্লেটে ‘সার্জেন্ট ইমরান আমার বন্ধু’ লেখার কারণ জানতে চাওয়া হয়।

সার্জেন্ট জুয়েল বলেন, ‘আমি তাকে আটকে বাইকের পেছনে লেমিনেটিং করা কাগজটি দেখতে পাই। তার কাছে কারণ জানতে চাইলে উত্তরে তিনি বলেন, ইমরান তার একজন খুব ভালো বন্ধু। সে তাকে মোটরসাইকেল কেনা থেকে শুরু করে তাকে চালানো শিখিয়েছেন। তাই বন্ধুর প্রতি কৃতজ্ঞতা থেকেই তিনি নম্বরপ্লেটে এটি লাগিয়েছেন। এর বেশি কিছু নয়।’

ট্রাফিক সার্জেন্ট জুয়েল আরো বলেন, ‘মোটরযানে নম্বরপ্লেটের স্থানে নম্বর ছাড়া কোনো অঙ্কন, নাম লেখা, খোদাই করা, ঘষামাজা করা, বিজ্ঞাপন দেওয়া আইনে নিষিদ্ধ। মোটরযান আইনের ২০১৮-এর ৯২ (২) ধারায় এই অপরাধের জন্য এক হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে।’

সার্জেন্ট জুয়েল জানান, আবিরের গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, লাইসেন্স, ইন্স্যুরেন্সসহ সব কাগজপত্র ঠিক ছিল। তিনি তার ভুল স্বীকার করেছেন এবং অনুতপ্ত হয়েছেন। তাই তাকে কোনো মামলা না দিয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বাইক নেমপ্লেট

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0209 seconds.