• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৮:২২:০২
  • ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৮:২২:০২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মাতৃভাষা দিবসে ডিএমপির ভুল ব্যানার

ছবি : সংগৃহীত

একুশে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশসহ পশ্চিমবঙ্গ তথা সমস্ত বাংলা ভাষা ব্যবহারকারী জনগণের গৌরবোজ্জ্বল একটি দিন। এটি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবেও পরিচিত। বাঙালি জনগণের ভাষা আন্দোলনের গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে।

১৯৫২ সালের এই দিনে (৮ ফাল্গুন, ১৩৫৮) বাংলাকে পূর্ব পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে কয়েকজন তরুণ শহীদ হন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলো রফিক, জব্বার, শফিউল, সালাম, বরকত সহ অনেকেই। তাই এ দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে।

এদিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে একটি ব্যানার ছাপিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সেখানে ১৯৫২ সালের ভাষা শহীদদের পরিবর্তে মহান একাত্তরের শহীদ সাত বীরশ্রেষ্ঠর ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। ব্যানারে বীরশ্রেষ্ঠদের ছবির ঠিক নিচে লেখা- আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদদের প্রতি আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা।

এর পরপর ছবিটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে ডিএমপি।

রিয়াজুল ইসলাম নামে একজন লিখেছেন, ব্যানারে কয়েকজন ভাষাসৈনিকের ছবি ব্যবহার করতে পারতো। কিন্তু, বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি কেন ব্যবহার করা হলো সেটা বুঝতে পারলাম না।

ফয়েজ আহমেদ নামে একজন লিখেছেন, তারা মাতৃভাষা দিবসের জন্য একটা ব্যানার বানালো অথচ বীরশ্রেষ্ঠ আর ভাষা সৈনিকদের মধ্যে পার্থক্যই বোঝে না।

শাশ্বত সত্য নামে একজন লেখেন, পুলিশের মতো সংস্থার কাছ থেকে এমন ভুল সত্যিই দুঃখজনক। তবে কেউ ইচ্ছাকৃত এমন কাজ করেছেন কিনা সেটাও ডিএমপির খুঁজে দেখা উচিৎ।

এ বিষয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, ‘এই ভুল ব্যানারটি টাঙানো হয়েছিল সেটি সত্য। তবে পরে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এটি এখন আর নেই। কীভাবে এই ব্যানারটি তৈরি করা বা টাঙানো হয়েছিল সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মাতৃভাষা দিবস ডিএমপি

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0203 seconds.