• বিনোদন ডেস্ক
  • ১২ মার্চ ২০২০ ১০:৪৬:৪১
  • ১২ মার্চ ২০২০ ১০:৪৬:৪১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

টম-রিটা দম্পতির শরীরে করোনাভাইরাস!

টম হ্যাঙ্কস ও রিটা উইলসন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জনপ্রিয় হলিউড অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস ও তার স্ত্রী রিটা উইলসন। গতকাল ১১ মার্চ, বুধবার ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক বিবৃতিতে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন ‘ফরেস্ট গাম্প’, ‘টয় স্টোরি’, ‘কাস্টওয়ে’, ‘সেভিং প্রাইভেট রায়ানে’র মতো দুর্দান্ত সব ছবির ৬৩ বছর বয়সী এই অভিনেতা। 

বর্তমানে বাজ লুহরমানের প্রোডাকশনের এলভিস প্রিসলির জীবনীভিত্তিক একটি সিনেমার শুটিংয়ের জন্য এই দম্পতি রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানেই তাদের শারীরিক পরীক্ষায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মেলে বলে জানান টম হ্যাঙ্কস।

তিনি লিখেন, ‘বন্ধুরা, রিতা এবং আমি এখন অস্ট্রেলিয়ায় রয়েছি। আমাদের কিছুটা ক্লান্তি অনুভব হয়েছিল, আমাদের ঠান্ডা লেগেছিল এবং শরীরে ব্যথাও ছিল।’

তার স্ত্রী রীতার শরীরও সময়-সময় ঠান্ডা হয়েছিল এবং সামান্য জ্বর ছিল উল্লেখ করে টম আরো লিখেন, ‘এমনটা হওয়ায় বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে আমরা দুজনেই করোনাভাইরাস পরীক্ষা করেছি এবং এটি ইতিবাচক বলে প্রমাণিত হয়েছে।’

তিনি আরো জানান, চিকিৎসকরা যা বলেছেন, সব কিছু মানতে হবে। যতদিন প্রয়োজন ততদিন আলাদা থাকতে হবে তাদের। তাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে ভক্তদের নিয়মিত খবরাখবর দেয়ার কথা উল্লেখ করে তিনি নিজেদের যত্ন নেওয়ার জন্য ভক্তদের প্রতিও আহ্বান জানান।

দ্য নিউইয়র্ক টাইমস, ইউএস ম্যাগাজিনসহ যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক গণমাধ্যম এমন সংবাদ প্রকাশ করে জানিয়েছে, জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় রেখে টম-রিটা দম্পতিকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

১৯৮৮ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন টম হ্যাঙ্কস ও রিটা উইলসন। তারাই প্রথম সেলিব্রিটি দম্পতি যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানিয়েছেন।  

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের কারণে ইতোমধ্যে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে অনেক বড় বড় প্রযোজনা সংস্থা। বিভিন্ন উৎসব-কনসার্ট বাতিল হয়ে যাচ্ছে। ‘মাই হার্ট উইল গো অন’ খ্যাত গায়িকা সিলিন ডিওন জানিয়েছেন, তার ঠাণ্ডা লাগায় আগামী নভেম্বর পর্যন্ত দুটি শো স্থগিত করা হয়েছে, যদিও তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মেলেনি।

এদিকে গতকাল বুধবার পর্যন্ত কোভিড-১৯ নামের করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জনেরও বেশি মানুষ। অন্তত ৪ হাজার ৬১৯ জনের প্রাণ কেড়েছে ভাইরাসটি। মৃতদের বেশির ভাগই এর শনাক্তস্থল চীনের নাগরিক।

বাংলা/এসএ

 

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0196 seconds.