• ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • ১৪ মার্চ ২০২০ ১৩:৩৭:২৪
  • ১৪ মার্চ ২০২০ ১৩:৩৭:২৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

করোনার ধাক্কা, ম্যাচ না খেলে দেশে ফিরেছে নিউজিল্যান্ড

ছবি : আইসিসি’র টুইট থেকে নেয়া

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ধাক্কা লেগেছে ক্রীড়াজগতেও। এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ ফুটবল লিগের ম্যাচ। বিশ্বকাপ বাছাই ও প্রীতি ম্যাচ স্থগিতের নির্দেশনা দিয়েছে ফিফা। একই কারণে পিছিয়ে দেয়া হয়েছে টি-টুয়েন্টির আসর আইপিএল।

এদিকে শ্রীলঙ্কা থেকে ফিরে গেছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট দল। দক্ষিণ আফ্রিকাও কোনো ম্যাচ না খেলেই ভারত ছেড়েছে। এবার নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলও অস্টেলিয়া ত্যাগ করেছে।

এর আগে গত শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচের প্রথমটি খেলে নিউজিল্যান্ড। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভয়ে দর্শক গ্যালারি থাকে শূন্য। মাঠে হাত না মিলিয়ে খেলার এই আয়োজন আদতে ব্যর্থ।

এর মধ্যেই আগামী ১৫ মার্চ, রবিবার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা না খেলেই ১৪ মার্চ, শনিবার অস্ট্রেলিয়া ত্যাগ করে নিজ দেশে ফেরেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল।

এদিকে শনিবার স্থানীয় সময় সাড়ে ৪টায় নিউজিল্যান্ড সরকার তার প্রতিরক্ষা নীতি জোরদার করেছে। বেশ কয়েকটি দেশের তালিকা দিয়েছে যেখান থেকে কেউ এলে তাদের অন্তত ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অস্ট্রেলিয়াও সেই তালিকায় আছে। আগামী রবিবার মাঝরাত থেকে এই আইন কার্যকর হবে।

এমতাবস্থায় সিরিজ শেষ করে দেশে ফিরলে ১৪ দিন আলাদা করে রাখতে হবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের সদস্যদের। এজন্য দেশটির ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেটারদের শনিবারই দেশে ফিরিয়ে নিচ্ছে।

এতে করে এ সিরিজের পর নিউজিল্যান্ডের মাটিতে দেশ দু’টির মধ্যে একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলে সেটাও স্থগিত হয়ে যাচ্ছে। কারণ অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররা সে দেশে গেলে তাদরে অন্তত ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ফলে এই সিরিজটিও নিকট ভবিষ্যতে আয়োজন করা যাবে না।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0241 seconds.