• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৭ মার্চ ২০২০ ১৩:৫২:৫৩
  • ১৭ মার্চ ২০২০ ১৭:১৯:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সবাই যখন ফিরিয়ে দিলো, জায়গা দিলো কিউবা

ছবি : সংগৃহীত

৬০০ যাত্রী নিয়ে ক্যারিবীয় সাগরে আটকা পরেছিলো ব্রিটিশ জাহাজ এমএস ব্রামার। জরুরি নোঙ্গরের জন্য অনুমতি চেয়ে বন্দরে বন্দরে ঘুরছিলো জাহাজটি। কিন্তু কোন দেশই অনুমতি দেয়নি, কারণ ওই জাহাজে ৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী ছিলো।

এই অবস্থায় মরিয়া হয়ে বাকী যাত্রীদের রক্ষার্থে ব্রিটিশ সরকার সহায়তা চায় মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় থাকা বিপ্লবী কিউবান সরকারের কাছে। আর মানবিক কারণেই এগিয়ে এসে পাশে দাঁড়ায় কিউবা। অনুমতি পেয়ে কিউবাতে নোঙ্গর করে জাহাজটি।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএন এর হাভানা প্রতিনিধি প্যাট্রিক অপম্যান বলেন, ‘জাহাজটিকে যখন কেউ জায়গা দিলো না নোঙ্গর করার জন্য তখন একমাত্র কিউবাই অনুমতি দিলো নোঙ্গর করার জন্য।’

কিউবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘পরিস্থিতির গুরুত্ব অনুধাবন করে, অসুস্থ মানুষের জীবন হুমকির মুখে থাকায় কিউবান সরকার জাহাজটিকে নোঙ্গর করার অনুমতি দেয়।’

কিউবার সরকার বলেন, ‘এখন বিশ্বসংহতির সময় এসেছে। এটা উপলব্ধি করতে হবে সবাইকে, স্বাস্থ্যসেবা মানুষের মানবিক মৌলিক অধিকার। আমাদের সবাইকে আন্তর্জাতিকভাবে এই সমস্যাকে মোকাবিলা করতে হবে বিপ্লবের মানবিক চর্চার মাধ্যমে এবং মানুষের ভেতরকার মূল্যবোধ জাগিয়ে তোলার মধ্যদিয়ে।’

জাহাজের যাত্রীরা যুক্তরাজ্যসহ তাদের নিজ নিজ দেশে প্লেনে করে ফিরে যেতে পারবে।  ব্রিটিশ সংস্থা ফ্রেড ওলসেন ক্রুজ লাইনের জাহাস এমএস ব্রামারে ৬৮২ জন যাত্রী এবং ৩৮১ জন ক্রু সদস্য ছিলো। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সবার জীবনই হুমকির ভেতর ছিলো। জাহাজটিতে অধিকাংশ যাত্রীই ব্রিটিশ নাগরিক হলেও সাথে কানাডা অস্ট্রেলিয়া, সুইজারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, জাপান, করোম্বিয়া, ইতালি, নরওয়ে এবং সুইডেনের নাগরিকরাও ছিলো।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

করোনাভাইরাস কিউবা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0283 seconds.