• বিদেশ ডেস্ক
  • ২০ মার্চ ২০২০ ১০:১৭:৪২
  • ২০ মার্চ ২০২০ ১২:০১:৪৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

দিল্লিতে চলন্ত বাসে ধর্ষণ, ৪ জনের ফাঁসি কার্যকর

ছবি : আনন্দবাজার থেকে নেয়া

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ২০১২ সালে রাস্তায় চলন্ত বাসে নির্ভয়া নামের মেডিকেল ছাত্রীকে গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় প্রাপ্তবয়স্ক চার অপরাধীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। ২০ মার্চ, শুক্রবার সকালে দিল্লির তিহাড় জেলে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরা হয়।

ওই চার আপরাধী হলেন- মুকেশ সিংহ, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত ও অক্ষয় কুমার সিংহ। এমন খবর প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার।

এই মামলায় মোট অপরাধী ৬ জন। বিচার চলাকালীন তিহাড় জেলেই আত্মহত্যা করে এক অপরাধী রাম সিংহ। নাবালক হওয়ায়, তিন বছর হোমে থেকেই সাজার মেয়াদ শেষ করে, ২০১৫ সালে মুক্তি মেলে আর এক অভিযুক্তের। যদিও পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছিল, নির্ভয়ায় উপর সেই রাতে সবচেয়ে নির্মম ভাবে অত্যাচার করেছিল এই নাবালকই।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে চলন্ত বাসের মধ্যে গণধর্ষণ এবং ভয়াবহ নির্যাতনের শিকার হন ২৩ বছর বয়সী প্যারামেডিক্যালের ছাত্রী। এ সময় বাধা দিলে প্রচণ্ড মারধর করা হয় তার বন্ধুকেও। ঘটনার পৈশাচিকতায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছিল গোটা ভারতে। তরুণীর আসল নাম পরে প্রকাশ্যে এলেও, নির্ভয়া নামেই তিনি পরিচিতি লাভ করেন। ধর্ষণের ১৩ দিন পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯ ডিসেম্বর তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় বাস চালক রাম সিংহ, মুকেশ সিংহ (রাম সিংহের ভাই), বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত, অক্ষয় সিংহ এবং এক নাবালককে গ্রেপ্তার করে দিল্লি পুলিশ। হেফাজতে থাকার সময় ৬ জনেই অপরাধের কথা স্বীকার করেছিল বলে জানিয়েছিল পুলিশ।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0812 seconds.