• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৫ মার্চ ২০২০ ১৪:০২:২০
  • ২৫ মার্চ ২০২০ ১৪:০২:২০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কাবুলে গুরুদুয়ারায় জঙ্গি হামলায় নিহত ৪

ছবি : সংগৃহীত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে শিখ ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয় গুরুদুয়ারায় হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা। আজ ২৫ মার্চ, বুধবার স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ৮টার দিকে কাবুলের শোরবাজার এলাকায় অবস্থিত ওই গুরুদুয়ারায় আত্মঘাতী হামলা দিয়ে এ হামলার শুরু হয়। নিরাপত্তাবাহিনীর পাল্টা হামলায় জঙ্গিরা উপাসনালয়টির ভেতরে ঢুকে বেশ ক’জনকে জিম্মি করে ফেলে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এইসময়। 

হিন্দু ও শিখ অধ্যুষিত কাবুলের শোরবাজার এলাকায় এ হামলার পর গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে দেশটির নিরাপত্তাবাহিনী। জঙ্গিদের মোকাবিলায় ঘটনাস্থলে আরো বাহিনী পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে আফগান সরকার।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান জানিয়েছেন, জঙ্গিরা গুরুদুয়ারার ভেতরে ঢুকে ভেতরের থাকা লোকজনকে জিম্মি করে ফেলে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করা হলেও এখনো অনেকে ভেতরে আটকা আছেন।

সকালে ওই গুরুদুয়ারাটির ফটকে প্রথমে একটি আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়। পরে নিরাপত্তাবাহিনী এগিয়ে এলে জঙ্গিরা এর ভেতরে ঢুকে পড়ে। এখনো তাদের সঙ্গে নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিবিনিময় চলছে।

এ বিষয়ে হামলার সময় ঘটনাস্থলে থাকা সংসদ সদস্য নরিন্দ্র সিং খালসা বার্তা সংস্থা এপি’কে জানান, হামলার পর সেখান থেকে তিনি দৌড়ে পালান। অন্তত চার জন এ সময় নিহত হয় বলেও জানান তিনি।

হামলার সময় ভেতরে বহু লোক ছিল উল্লেখ করে তিনি রয়টার্সকে বলেন, ‘গুরুদুয়ারায় যখন বন্দুকধারীরা হামলা চালায় তখন সেটি উপাসকে পরিপূর্ণ ছিল।’

আনারকলি কাউর নামের অপর এক শিখ ধর্মাবলম্বী সংসদ সদস্য এএফপি’কে বলেন, ‘অন্তত ১৫০ জনের মতো লোক গুরুদুয়ারার ভেতরে ছিল। ভেতরে থাকা অনেকেই লুকিয়ে আছেন, তাদের ফোনও বন্ধ আছে।’ তাদের জীবনের আশঙ্কা করছেন আনারকলি।

শোরবাজার এলাকায় আগে বহু গুরুদুয়ারা ছিল। কিন্তু ১৯৮০ সাল নাগাদ তার বেশিরভাগই ধ্বংস করে ফেলা হয়।

বাংলা/এসএ 

 

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0224 seconds.