• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৭ মার্চ ২০২০ ০১:৩৪:৩৬
  • ২৭ মার্চ ২০২০ ০১:৩৫:৫০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আদালতে আর যেতে হবে না খালেদা জিয়াকে : আইনজীবী

খালেদা জিয়া। ছবি : সংগৃহীত

জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় ১৭ বছর সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ছয় মাসের জন্য মুক্তি পেয়েছেন। তবে তার বিরুদ্ধে আরো ৩৪টি মামলা ঝুলছে। এসব মামলার কয়েকটিতে স্থায়ী জামিনে আছেন, আবার কিছু মামলায় মেয়াদি জামিন।

এমন অবস্থায় খালেদা জিয়াকে কী আবারো আদালতে যেতে হবে? এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের সদস্য সগীর হোসেন লিওন বলেন, ‘জামিন এক বিষয়। আর আদালতে হাজিরা অন্য বিষয়। সাজা হওয়া দুই মামলায় ছয় মাস আদালতে যেতে হবে না ম্যাডামকে। কিন্তু অন্যান্য কিছু মামলার তারিখের দিন ম্যাডামকে আদালতে যেতে হবে। এটাই সাধারণ নিয়ম।’

এসব মামলার মধ্যে রয়েছে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি মামলা, নাইকো ও গ্যাটকো মামলা। বাকি মামলাগুলোর অধিকাংশই স্থায়ী জামিনে আছেন তিনি। কোনোটাতে এক বছরের জামিনেও আছেন, বলেন সগীর হোসেন লিওন।

তবে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট জামিন ও জরুরি বিষয় ছাড়া আসামিকে আদালতে হাজির না করতে প্রজ্ঞাপন জারি করে। সুপ্রিম কোর্টের এই প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত কোনো মামলাতেই খালেদা জিয়াকে আদালতে যেতে হচ্ছে না। এমনটাই মনে করেন খালেদার আইনজীবী প্যানেলের এই সদস্য।

খালেদা জিয়াকে বয়স ও মানবিক দিক বিবেচনা করে বুধবার এক নির্বাহী আদেশে ছয় মাসের জন্য কারাগার থেকে ‍মুক্তি দেয়া হয়। সরকার যে দুই শর্তে তাকে মুক্তি দিয়েছে তা হলো- তাকে গুলশানের বাসায় থেকে চিকিৎসা নিতে হবে এবং বিদেশে যেতে পারবেন না।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে ছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। একই বছরে তিনি জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায়ও দোষী সাব্যস্ত হন। যদিও তার দল বলছে, দুটি মামলাই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিএনপি খালেদা জিয়া

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0829 seconds.