• ২৮ মার্চ ২০২০ ১৬:৩৩:৩৮
  • ২৮ মার্চ ২০২০ ১৬:৩৩:৩৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পাঞ্জাবে একজন থেকে ‘সংক্রমণ’ ৪০ হাজার দেহে

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের ২০টি গ্রামের ৪০ হাজার বাসিন্দাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে, তাদের সবার দেহে এই রোগ সংক্রমিত হয়েছে মাত্র একজনের কাছ থেকে। সেখানকার বাসিন্দা সত্তর-বছর বয়সী বলদেব সিং সম্প্রতি করোনাভাইরাসে মারা গেছেন। আর এই ঘটনা প্রকাশিত হয়েছে তার মৃত্যুর পর।

স্থানীয় প্রশাসনের বরাবে বিবিসি’র খবরে বলা হয়, এই ব্যক্তি একজন শিখ ধর্মপ্রচারক। সম্প্রতি তিনি ইতালি এবং জার্মানি সফর শেষে দেশে ফেরেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকানোর জন্য স্বেচ্ছায় জন-বিচ্ছিন্ন থাকার যেসব উপদেশ রয়েছে তিনি তার কোনটাই মেনে চলেননি।

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৬৪০ জন। এর মধ্যে ৩০ জন রোগী পাঞ্জাবের। তবে বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, ভারতে করোনাভাইরাস রোগী আসল সংখ্যা অনেক বেশি হবে।

খবরে বলা হয়, বলদেব সিংয়ের মৃত্যুর কিছুদিন আগে শিখ ধর্মের একটি উৎসব হোলা মহল্লা উপলক্ষে বলদেব সিং বড় ধরনের এক জনসমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন। ছয়দিনব্যাপী ঐ উৎসবে প্রতিদিন প্রায় ১০,০০০ মানুষ যোগ দিয়েছিলেন।

বলদেব সিংয়ের মৃত্যুর পর তার ১৯জন আত্মীয়র দেহে পরীক্ষায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে।

পাঞ্জাবের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘এপর্যন্ত আমরা ৫৫০ ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে পেরেছি যারা সরাসরিভাবে তার সংস্পর্শে এসেছিল। কিন্তু এই সংখ্যা এখন বাড়ছে। তিনি যেখানে থাকতেন তার আশেপাশে ১৫টি গ্রাম আমরা এ পর্যন্ত সিল করে দেয়া হয়েছে।’ পাশের জেলার পাঁচটি গ্রামও লকডাউন করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0802 seconds.