• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ৩০ মার্চ ২০২০ ১৩:৪৩:১১
  • ৩০ মার্চ ২০২০ ১৩:৪৩:১১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

করোনা সন্দেহে নারীকে বাড়ি থেকে বের করে দিলো স্বজনরা

রেনিস বেগম মালা। ছবি : সংগৃহীত

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সন্দেহে বাড়ি থেকে এক নারীকে বের করে দিয়েছেন তার স্বজনরা। ভুক্তভোগী রেনিস বেগম মালা (৪২) এখন অসহায় অবস্থায় রাস্তায় ঠাঁই নিয়েছেন। ২৯ মার্চ, রবিবার রাতে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার সদর ইউনিয়নে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে।

রেনিস বেগম মালা উপজেলার সদর ইউনিয়নের উনিশ নম্বর গ্রামের মৃত নূর হোসেন হাওলাদারের মেয়ে। তিনি ঢাকার মুগদা থানার উত্তর মুগদাপাড়ায় বাস করেন।

রেনিস বেগমের স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে তিনি স্বামী পরিত্যক্তা। স্বামীর সঙ্গে দূরত্বের পর থেকেই তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত।

জানা গেছে, রেনিস এক সপ্তাহ আগে ঢাকা থেকে রাঙ্গাবালী এসে উনিশ নম্বর গ্রামের সৎভাই জসিম হাওলাদারের বাড়িতে ওঠেন। কিন্তু কয়েক দিন ধরে জ্বরে ভুগছেন তিনি। পরে রেনিসের স্বজন ও স্থানীয় কয়েকজন তাকে ঘর থেকে বের করে দেন। এরপর থেকে খালগোড়া বাজারের চৌরাস্তায় গিয়ে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন তিনি।

ওই বাজারের স্থানীয়রা জানান, রাত ৮টার দিকে চৌরাস্তায় একটি দোকানের সামনে রেনিস নামে এক নারী অসুস্থ অবস্থায় এসে আশ্রয় নিয়েছেন। সেখানে তিনি কাতরাচ্ছিলেন। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন বলেও তারা দাবি করেন।

এন্ট্রি করোনা ইউথ সোসাইটি রাঙ্গাবালীর স্বেচ্ছাসেবী গাজী মো. নাহিদ বলেন, ‘বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি খোলা জায়গায় ওই নারী নিরাপদ নয়। বিষয়টি শুনে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে যাই। ইউএনওকেও বিষয়টি অবহিত করেছি।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশফাকুর রহমান বলেন, ‘ঘটনাটি শুনে আমি তাৎক্ষণিক খোঁজ নিয়েছি। তার ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি। রাতে তার খাবারের ব্যবস্থা করেছি। ডাক্তারের সঙ্গেও কথা বলেছি। তাকে এখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে প্রয়োজনে উন্নত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হবে।’

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0872 seconds.