• বিনোদন ডেস্ক
  • ০৪ এপ্রিল ২০২০ ২০:১৪:৫৭
  • ০৪ এপ্রিল ২০২০ ২০:১৪:৫৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

এক সঙ্গে শুরু হচ্ছে ‘কোথাও কেউ নেই’ ও ‌‘বহুব্রীহি’

ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কারণে ঘরবন্দি মানুষ। অন্যদিকে থেমে গেছে নাটকের শুটিং। আর এ দুটো কারণে পুরনো জনপ্রিয় দুটি ধারাবাহিক নাটক প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল বিটিভি।

এগুলো হলো নন্দিত কথাশিল্পী হ‌ুমায়ূন আহমেদের লেখা ‘কোথাও কেউ নেই’ ও ‌‘বহুব্রীহি’। নাটক দুটি প্রযোজনা করেছিলেন বরকত উল্লাহ ও নওয়াজিশ আলি খান।

আগামী ৬ এপ্রিল থেকে এগুলো বিটিভিতে পুনঃপ্রচার হবে বলে জানান চ্যানেলটির মহাপরিচালক এস.এম. হারুন-অর-রশীদ।

তিনি বলেন, ‘করোনার এই সময় মানুষ যেন বাসায় ভালোভাবে সময় কাটাতে পারেন, এ জন্য পুরনো দুটি নাটক প্রচারের নির্দেশ দিয়েছি। এছাড়া এখন চাইলেইও তো শুটিং করতে পারছি না। শিল্পীরাও আসবেন না। আর আসার মতো সময়ও নয় এখন। সব মিলিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেয়া।’

কবে ও কখন এগুলো প্রচার হবে, এই প্রসঙ্গে মহাপরিচালক আরো বলেন, ‘৬ এপ্রিল থেকে প্রচার শুরু করার পরিকল্পনা। দুটি নাটকই একই সঙ্গে শুরু হবে। অনেক পুরো জিনিস তো, এগুলো চাইলেই তো সঙ্গে সঙ্গে প্রচার করতে পারি না। কিছুটা প্রস্তুতিও নিতে হয়। এটা নিতে যতটুকু সময় লাগে, এটুকুই। তবে প্রচারের সময় এখনও ঠিক করা হয়নি।’

১৯৯২-৯৩ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয় ‘কোথাও কেউ নেই’। এদেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা জনপ্রিয় নাটক ধরা হয় এটা। যার মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা পায় ‘বাকের ভাই’। এ চরিত্রে অভিনয় করেন আসাদুজ্জামান নূর।

এতে মুনা সুবর্ণা মুস্তাফা, বদি আবদুল কাদের, মজনু লুৎফর রহমান জর্জ, মতি মাহফুজ আহমেদ, উকিল ভূমিকায় হুমায়ুন ফরীদিও তুমুল সাড়া পান।

অন্যদিকে পারিবারিক গল্পে ‘বহুব্রীহি’ও তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। ১৯৮৮-৮৯ সালের দিকে বিটিভিতে প্রচারিত হয় এটি।

সামরিক শাসনের সেই সময়ে এ ধারাবাহিকে টিয়া পাখির মুখে বলা ‘তুই রাজাকার’ সংলাপটি জনপ্রিয় হয়। স্বাধীনতাবিরোধীদের প্রতি ঘৃণার প্রতীক হিসেবে এটি আলোচিত হয়েছিল। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, আসাদুজ্জামান নূর, আলী যাকের, আফজাল হোসেন, লুৎফরনাহার লতা, লাকী ইনাম, আবুল খায়ের, আফজাল শরীফসহ আরো অনেকে।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0708 seconds.