• ০৬ এপ্রিল ২০২০ ১৯:০৯:১৮
  • ০৬ এপ্রিল ২০২০ ১৯:০৯:১৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বাড়িতে-সড়কে ঝুলছে যেসব সতর্কবার্তা

ছবি : বাংলা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস রোধে কুড়িগ্রামে জেলার উলিপুরের জোদ্দারপাড়া ও কাছারী পাড়ার বিভিন্ন জায়গায় ও বাসা বাড়ির গেটে ঝুলছে ‘রাস্তা বন্ধ’ বা ‘আপাতত প্রবেশ নিষেধ’ এমন কিছু ফেস্টুন ও হাতে লেখা ছোট কাগজের পোস্টার।

ফেস্টুন গুলোতে- করোনা প্রতিরোধে সচেতন থাকি, নিজ ঘরে অবস্থান করি, জনসমাগম এড়িয়ে চলি, বিশেষ প্রয়োজনে চলাফেরায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখি, সরকারি বিধি-নিষেধ মেনে চলি এমন বিভিন্ন ধরনের সচেতনতমূলক কথা লেখা রয়েছে।

আরো লেখা আছে- জনস্বার্থে: এলাকাবাসী ও ফ্রেন্ডস্ ফেয়ার, উলিপুর। এছাড়া, মানুষ যাতে অপ্রয়োজনে বাইরে যেতে না পারে সেজন্য রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় বাঁশ, গাছের গুড়ি, টায়ার ও ইটের টুকরো ফেলে রাখতে দেখা গেছে।

জানা গেছে,  উলিপুরের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ফ্রেন্ডস্ ফেয়ার ও জোদ্দারপাড়া এবং কাছারীপাড়ার কজন সচেতন যুবক করোনা সতর্কতার অংশ হিসেবে এ দুটি পাড়ার বিভিন্ন মোরে ও নিজেদের বাসা বাড়ির গেটে এমন সচেতনতামূলক ফেস্টুন ও পোস্টার লাগিয়েছেন। এ বিষয়ে জোদ্দারপাড়ার অসীত সরকার চপল বলেন, পৃথিবীতে করোনা আজ মহামারী আকার ধারণ করেছে। প্রতিদিন মানুষ মারা যাচ্ছে। তাই মানুষ যাতে অযথা বাইরে থেকে আমাদের পাড়ার ভিতরে প্রবেশ করতে না পারে বা অপ্রয়োজনে কেউ বাইরে ঘুরতে বের না হয় সেজন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ফ্রেন্ডস্ ফেয়ারের স্থায়ী পরিষদ সদস্য জনাব আল আমিন জানান, আমরা সব সময় সামাজিক কাজের সাথে জড়িত থাকি। বর্তমানে করোনা যেভাবে ভয়াবহ ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে তাতে করে সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। তাই আমাদের সংগঠন ও জোদ্দারপাড়া ও কাছারী পাড়ার কিছু সচেতন ভাইদের নিয়ে আপাতত এ দুটি পাড়ার বিভিন্ন মোরে রাস্তা বন্ধের উদ্যোগ নিয়ে কিছু সচেতনতামূলক ফেস্টুন লাগিয়েছি। উলিপুর পৌরসভার অন্যান্য পাড়ার মানুষ যদি চান তবে আমরা সেসব পাড়াতেও এমন উদ্যোগ নিতে প্রস্তুত রয়েছি।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে উলিপুর পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে পোস্টারিং ও জীবাণু নাশক ছিটানোর কাজ করেছে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ফ্রেন্ডস্ ফেয়ার।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

করোনাভাইরাস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0667 seconds.