• বিনোদন ডেস্ক
  • ২৭ এপ্রিল ২০২০ ১৮:০৮:১২
  • ২৭ এপ্রিল ২০২০ ১৮:০৮:১২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

খাবারে ভরে গেছে আকবরের ঘর

কণ্ঠশিল্পী আকবর। ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতির ভেতর অভাব-অনটনের মধ্যে ছিলেন কণ্ঠশিল্পী আকবর। ঘরে ছিলো না কোনো খাবার, ছিলো না খাবার কেনার টাকাও। এমন খবরই গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় গত কয়েকদিন। খবর প্রকাশের পর থেকেই খাবারে ভরে যাচ্ছিলে আকবরের বাসা।

২৭ এপ্রিল, সোমবার আকবর নিজেই এমন তথ্য জানান। আকবরের বাসায় এ পরিমাণ খাবার চলে আসছে যে সে  খাবার রাখার জায়গাও আকবরের বাসায় নেই। তাই যে দুই মাসের খাবার রেখে বাকিটা আশপাশের অভাবি মানুষকে দিয়ে দিচ্ছেন বলে জানালেন আকবর।

আকবর বলেন, করোনার পরিস্থিতির আগে থেকেই খুব একটা ভালো নেই আমি। আর করোনা ভাইরাসের কারণে সব কিছু বন্ধ হয়ে এলে সংসার চালাতেও কষ্ট হচ্ছিলো আমার। কিছু সাংবাদিক ভাইয়েরা আমার খোঁজ খবর নিয়ে খবর প্রকাশ করায় সব অনেকেই খাবার নিয়ে আসছেন বাসায়।  তবে বেশি খাবার রাখছিনা আমি। পাশে থাকা অভাবিদের দিয়ে দিচ্ছে। তারাও অনেক কষ্টে আছেন।

তার এমন দূরাবস্থার খবর পেয়ে মানুষ এভাবে ভালোবাসা দেখাবে তা কখনও ভাবনাও আসেনি আকবরের। বিষয়টি তাকে আপ্লুত করেছে বলেই মন্তব্য এ শিল্পীর। সবার কাছে কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি। 

আকবর পরিবার নিয়ে ঢাকার মিরপুর ১৩ নম্বরে থাকেন। গত বছরের শুরুর দিকে অসুস্থ হয়ে বেশ কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হয় আকবরকে। তার অসুস্থতার খবরে ২০ লাখ টাকা অনুদান দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই টাকার মুনাফা হিসেবে তিন মাস পরপর ৪৯ হাজার টাকা ব্যাংক থেকে তোলেন আকবর। সেই টাকার একটি অংশে (প্রতি মাসে ১৬ হাজার ৩০০ টাকায়) প্রতি মাসের খরচ চলত।

কিশোর কুমারের ‘একদিন পাখি উড়ে’ নতুন করে গেয়েছিলেন আকবর আলী গাজী। সবার কাছে তিনি আকবর নামে পরিচিত।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

কণ্ঠশিল্পী আকবর

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0750 seconds.