• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:২২:৩৯
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:২২:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

তেল বিক্রি নিয়ে ইরাক-কুর্দিস্তানের মধ্যে দ্বন্দ্ব

একটি তেলক্ষেত্রের পাশে কুর্দিস্তান সেনা। ছবি : পার্সটুডে থেকে নেয়া

তেল বিক্রির অর্থ ভাগাভাগি নিয়ে ইরাক এবং দেশটির স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকারের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়েছে। এর জের ধরে দেশটির অর্থমন্ত্রীকে কুর্দি অঞ্চলের জন্য তহবিল বরাদ্দ বন্ধ করা নির্দেশ দিয়েছেন। এমন সময়ে এই দ্বন্দ্ব দেখা দিলো যখন করোনা মহামারীতে বিশ্বব্যাপী তেলার দাম যখন নিম্নমুখী।

এদিকে অর্থমন্ত্রীর এমন সিদ্ধান্তের বিপরীতে দেশটির কাউন্সিল অব মিনিস্টার্স জানায়, অর্থ মন্ত্রণালয় কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকারকে অর্থ বরাদ্দ বন্ধ করতে বাধ্য। গত ১৬ এপ্রিল অর্থমন্ত্রী ফুয়াদ হোসেনকে লেখা একটি চিঠিতে কাউন্সিল অব মিনিস্টার্স এ কথা বলেন। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম পার্সটুডে।

ওই চিঠিতে আরো বলা হয়, গত অক্টোবর মাস থেকে কুর্দিস্তান সরকার তেল বিক্রির অর্থ বাগদাদের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে ব্যর্থ হয়। আর এজন্যই কুর্দিস্তানে অর্থ বরাদ্ধ দেয়া বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

কুর্দিস্তান সরকার প্রতিদিন আড়াই লাখ ব্যারেল তেল বিক্রি করে। তেল বিক্রির সেই অর্থ তারা ইরাক সরকারের কাছে দেয়। এরপর ইরাকের সরকারের কাছ থেকে শতকরা ১২.৫ ভাগ অর্থ বরাদ্দ পায় স্বায়ত্তশাসিত এই অঞ্চলটি।

প্রসঙ্গত, ওপেকের প্রধান পাঁচটি তেল উৎপাদনকারী দেশের একটি হলো ইরাক। কিন্তু দেশটির তেল বিক্রির অর্থ ভাগাভাগি নিয়ে দেশটির সরকারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে কুর্দিস্তান সরকারের দ্বন্দ্ব চলে আসছে। ২০০৯ সাল থেকে কুর্দিস্তান সরকার তুরস্কের মাধ্যমে বিশ্ব বাজারে অপরিশোধিত তেল বিক্রি করে থাকে।

বাংলা/এনএস

সংশ্লিষ্ট বিষয়

তেল ইরাক কুর্দিস্তান

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0668 seconds.