• বাংলা ডেস্ক
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:৩৩:০৭
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:৩৩:০৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

নিত্য নতুন উপসর্গ নিয়ে দেখা দিচ্ছে করোনা!

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের প্রধান উপসর্গ হিসেবে জ্বর, কাশি, গলাব্যাথা, শ্বাসকষ্ট, স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি হারানোর মতো কিছু লক্ষণকেই এতদিন শনাক্ত করেছিলেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। তবে এর বাইরেও নানা সময়ে বিভিন্ন বয়সী রোগীর ক্ষেত্রে চোখে প্রদাহ, ডায়রিয়া, অ-কোষে ব্যথা, পেটে ব্যথাসহ আরো কিছু অদ্ভুত উপসর্গও দেখা গেছে।

এবার করোনা সংক্রমণের নতুন ছয়টি উপসর্গ চিহ্নিত করেছে মার্কিন স্বাস্থ্য সংস্থা সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

এগুলো হলো- অত্যধিক শীত অনুভব করা, কাঁপুনি দেওয়া, মাংসপেশিতে ব্যথা, মাথাব্যথা, স্বাদ বা ঘ্রাণশক্তি হারানো, বুকে ব্যথা, ঠোঁট নীলচে হয়ে যাওয়া।

এছাড়া গলা খুসখুস করা, নাক দিয়ে পানি গড়িয়ে পড়লেও তাকে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপসর্গ হিসেবে ধরা হবে বলেও জানিয়েছে সিডিসি। শরীরে ভাইরাস প্রবেশের ২ থেকে ১৪ দিনের মধ্যেই দেখা যাবে এ উপসর্গগুলো। তবে শ্বাসকষ্টের সমস্যাকে চরম বিপদের লক্ষণ বলে জানিয়েছে সিডিসি।

তারা জানায়, সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে ভ্যাবাচেকা খাওয়াও সাময়িক সমস্যা করোনা সংক্রমণের একটি লক্ষণ হতে পারে। সিডিসি-র সঙ্গে যুক্ত মার্কিন বিশেষজ্ঞরা এমনটাই মনে করছেন।

সেইসাথে, ঘুম থেকে ওঠার অক্ষমতাতেও লুকিয়ে থাকতে পারে করোনা আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা!

এই ভাইরাসের জেরে মুখ ও ঠোট নীলচেও হয়ে যেতে পারে। এছাড়াও সম্প্রতি উপসর্গহীন করোনা রোগীর সন্ধানও মিলেছে। এক ভাইরাসের এত রূপ দেখে বিশ্বের বিভিন্ন মহলের বিজ্ঞানী ও বিশেষজ্ঞদের রাতের ঘুম এখন একরকম হারাম হয়ে গেছে।

এদিকে যুক্তরাজ্য থেকে করোনাভাইরাসের নতুন উপসর্গ হিসেবে হাত, পিঠ, বুক এমনকি জিহ্বায় র‌্যাশের মতো সমস্যারও সংবাদ পাওয়া গেছে। শিশু-কিশোরদের মধ্যে এ সমস্যা বেশি দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে ডেইলি মেইল জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাজ্যে শিশুদের মধ্যে ত্বকে গুরুতর প্রদাহজনক রোগ দেখা দিয়েছে। এমন উপসর্গ নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিভিন্ন হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হয়েছে বহু শিশু।

এ ব্যাপারে দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য সেবার (এনএইচএস) আওতাধীন সব চিকিৎসককে জরুরি সতর্কতা পাঠিয়েছেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তারা। ধারণা করা হচ্ছে, এটি করোনাভাইরাসেরই কোনো উপসর্গ।

ইতালি-স্পেনসহ ইউরোপের অনেক দেশে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে আরেক অদ্ভূত উপসর্গ দেখা দিয়েছে। এতে আক্রান্ত অনেক রোগীর পায়ের পাতা বা আঙ্গুলে তীব্র ঠাণ্ডায় সৃষ্ট ঘায়ের মতো ক্ষত বা ত্বক লাল-নীল হয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে দেখো দিচ্ছে চুলকানিও। এটিকে ‘কোভিড ফিট’ হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।

বাংলা/এসএ/

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0601 seconds.