• বাংলা ডেস্ক
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:৩৯:২৪
  • ২৮ এপ্রিল ২০২০ ১৩:৩৯:২৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

করোনা থেকে সেরে উঠতে যতদিন লাগতে পারে

ছবি : সংগৃহীত

এক কথায় এর উত্তর দেয়া মুশকিলই বটে। তবুও আসুন আমরা একটু জানার চেষ্টা করি সেরে ওঠার এ সময়কাল কেমন হতে পারে, কতদিন লাগতে পারে তা নিয়ে। বিবিসি’তে প্রকাশিত Coronavirus: How long does it take to recover? প্রতিবেদনটি সহজ, ঈষৎ ভাষাগত পরিবর্তন ও সংক্ষেপিত আকারে ভাষান্তর করে বাংলা'র পাঠকের জন্য তুলে ধরা হলো।

প্রথমত করোনা থেকে সেরে ওঠা  নির্ভর করে আপনি কীভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তার উপরে। দেখা যায় কেউ কেউ অসুস্থতা থেকে দ্রুত সেরে উঠছে। আবার কেউ বা দেরীতে। 

এ ছাড়াও বয়স, লিঙ্গ এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যাগুলি কোভিড -১৯ থেকে সুস্থ হওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা পালন করে থাকে। জটিলতা যত বাড়বে সুস্থ্য হওয়ার সময়কালও তত বেশি লাগবে- সেটাই মোটামুটিভাবে আমরা ধরে নিতে পারি।

প্রশ্ন নং-১ঃ আমার যদি কেবলমাত্র হালকা লক্ষণ থাকে?

কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত বেশিরভাগ লোকরই প্রধান লক্ষণ থাকে - কাশি বা জ্বর। তবে তারা শরীর ব্যথা, ক্লান্তি, গলা ব্যথা এবং মাথা ব্যাথা অনুভব করতে পারে।

এই লক্ষণগুলো বিশ্রাম, প্রচুর পরিমাণে তরল খাবার গ্রহণ এবং ব্যথানাশক ওষুধ যেমন প্যারাসিটামল খেলেই ভালো হয়ে যায়।

হালকা লক্ষণযুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে দেখা গেছে- জ্বর ১  সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে ছলে গেছে। যদিও কাশি দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে। চীনা  তথ্য বিশ্লেষণ করে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন বলেছে যে এটি পুনরুদ্ধারে গড়ে ২ সপ্তাহ সময় নেয়।

প্রশ্ন নং-২ঃ যদি আমার লক্ষণগুলো আরও গুরুতর হয়?

এই রোগ কারও কারও কাছে মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। এটি সংক্রমণের প্রায় ০৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে ঘটে থাকে। তখন হঠাৎ শ্বাস নিতে কষ্ট হয় এবং ফুসফুস ফুলে যায়।

যুক্তরাজ্যে কর্মরত ডা. সারা জার্ভিস বলেছেন, ‘শ্বাসকষ্ট হওয়া রোগীদের উন্নতি করতে কিছুটা সময় লেগে যেতে পারে।’ তিনি বলেন, ‘এ অবস্থা থেকে পুরোপুরি ভালো হতে ০২ থেকে ০৮ সপ্তাহ সময় লাগতে পারে।

প্রশ্ন নং-৩ঃ আমার যদি নিবিড় যত্ন (ICU) প্রয়োজন হয়?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর অনুমান প্রতি ২০ জন এর মধ্যে একজন ব্যক্তির নিবিড় চিকিৎসার প্রয়োজন হয়। মানে আইসিইউ সাপোর্ট লাগতে পারে।

নিবিড় বা ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিটের (আইসিইউ) যে কোন রোগী সেরে উঠতে সময় লাগবে, অসুস্থতা যাই হোক না কেন। তাছাড়া হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেতেও সময় লাগে। কারণ আইসিইউ ফেরত রোগীদের ছেড়ে দেয়ার আগে নিয়মিত ওয়ার্ডে সরানো হয়।

ইনটেনসিভ কেয়ার মেডিসিন অনুষদের ডিন ডা. অ্যালিসন পিটার্ড বলেছেন যে গুরুতর এমন অসুস্থতার পরে আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে ১২ থেকে ১৮ মাস সময় লাগতে পারে।

হাসপাতালের বিছানায় দীর্ঘ সময় থাকার ফলে রোগীর মাংসপেশীগুলোর ব্যাপক ক্ষতি হয়। রোগীরা দুর্বল হয়ে পড়ে এবং পেশীগুলো আবার তৈরিতে সময় লাগবে। কিছু লোকের আবার হাঁটার জন্য ফিজিওথেরাপিরও প্রয়োজন হতে পারে।

পরিশেষে, এটা বলা যায় যে আসলে যে রোগীর অবস্থা যত খারাপ হবে সে রোগীর সুস্থ্য হতেও তত বেশি সময় লাগবে। এজন্য সবচেয়ে ভালো কাজ হচ্ছে- সাবধানতা অবলম্বন করা এবং সতর্ক থাকা; যাতে করোনা ভাইরাসের আক্রমণকে আমরা সহজেই প্রতিহত করতে পারি।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

করোনাভাইরাস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0994 seconds.