• বিনোদন ডেস্ক
  • ২৯ এপ্রিল ২০২০ ১৪:৫৮:০৬
  • ২৯ এপ্রিল ২০২০ ১৫:০০:২৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘খবর না রাখা’ ইরফান খানের যত টিভি শো

ইরফান খান। ছবি : সংগৃহীত

আমরা সকলেই এ শক্তিমান অভিনেতাকে চলচ্চিত্রের একজন মানুষ হিসেবেই এক নামে চিনি ও জানি। এ পরিচয়ে পরিচিত হতেই তিনিও সবচেয়ে বেশি ভালোবাসতেন। তাই হয়তো টিভি সিরিজ ‘চন্দ্রকান্ত’তে তিনি প্রথমে অভিনয়ই করতে চাননি। যদিও পরে তিনি অভিনয় করেছিলেন।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, প্রথমে রাজি না হলেও তাহলে পরে কেন তিনি রাজি হয়েছিলেন এ টিভি সিরিজে অভিনয়ে? সে কথায় পরে আসছি।

যে কথা বলছিলাম। তিনি বলিউড অভিনেতা হিসেবে সমধিক পরিচিতি লাভ করলেও জীবদ্দশায় বেশ কিছু টেলিভিশন চরিত্র এবং অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। আমাদের অনেকেই তার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের খোঁজ রাখলেও হয়তো তার টেলিভিশন অনুষ্ঠানের খবর রাখিনি। আসলে তাকে তো চলচ্চিত্রের অভিনেতা হিসেবেই সবাই সানন্দে গ্রহণ করেছিলেন।

যাই হোক, তার এমন হঠাৎ অকালপ্রয়াণে আমরা তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই। এখন আসুন জেনে নিই তার অংশ নেয়া টিভি অনুষ্ঠানগুলোর নাম। তিনি ভারতে ও ভারতের বাইরেও নানামাত্রিক টিভি শোতে অংশ নেন।  

‘চাণক্য’ ‘ভারত এক খোঁজ’, ‘সারা জাহান হামারা’, ‘বানেগী আপন বাত’, ‘চন্দ্রকান্ত’, ‘শ্রীকান্ত’, ‘অনুগঞ্জ’, ‘স্টার বেস্টসেলার’ এবং ‘স্পর্শ’সহ বেশ কয়েকটি ভারতীয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

টেলিভিশন সিরিজ ‘চন্দ্রকান্ত’ (১৯৯৪-৯৬) -তে ইরফান খান বদরিনাথ/সোমনাথ (যমজ ভাই) চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

যদিও তিনি এ সিরিজে অভিনয়ে আগ্রহী ছিলেন না- সে কথা শুরুতেই বলেছি। কিন্তু কেন তিনি পরে রাজি হলেন? এর উতৃতর হচ্ছে তিনি ছিলেন বন্ধু বৎসল। তাই  তার বন্ধু এবং চন্দ্রকান্তের সহ-অভিনেতা শাহবাজ খানের চাপের কাছে নতি স্বীকার করে এ সিরিজে অভিনয়ে রাজি হয়েছিলেন। এবং অন-স্ক্রিনে যমজ এ চরিত্রদুটোর জন্য স্বীকৃতিও অর্জন করেছিলেন।

আগেই বলেছি, ইরফান খান কেবল ভারতীয় টেলিভিশনে তার দক্ষতা প্রমাণ করেননি। অভিনয় করেছেন বিদেশী টিভিতে চ্যানেলেও। তিনি ‘ইন ট্রিটমেন্ট’ নামক একটি আমেরিকান টিভি সিরিজেও অংশ নিয়েছিলেন/ যেখানে তিনি সুনীল নামক চরিত্রে অভিনয় করেন।

এছাড়াও জাপানি চার পর্বের টিভি সিরিজ ‘টোকিও ট্রায়াল’ এ রাধাবিনোদ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।
২০১৮ সালে শক্তিমান এ অভিনেতা মস্তিষ্কের বিরল ধরণের ক্যান্সার ‘নিউরো এনডোক্রাইন’ এ আক্রান্ত হন।গতকাল তিনি মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে কোলন ইনফেকশান নিয়ে আইসিইউতে ভর্তি হন।
আর আজ তিনি মৃত্যুবরণ করলেন। এভাবেই সাঙ্গ হলো তার ৫৩ বছরের এক চোট্ট কিন্তু অর্থপূর্ণ জীবনের। মৃত্যুকালে রেখে গেছেন স্ত্রী, দুই সন্তান এবং অবশ্যই তার অসংখ্য গুনগ্রাহী যারা তাকে অপার ভালোবাসা দিয়েছিলেন।

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ইরফান খান ভারত অভিনেতা

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0734 seconds.