• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৭ মে ২০২০ ১৬:২২:০২
  • ০৭ মে ২০২০ ১৬:২২:০২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ভেনিজুয়েলায় সরকার উৎখাতের ‘পরিকল্পনা’ নস্যাৎ

মাদুরো। ছবি : সংগৃহীত

ভেনিজুয়েলায় সরকার উৎখাতের কথিত ‘পরিকল্পনা’র সাথে জড়িত থাকার দায়ে এ সপ্তাহে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের একজন লিউক ডেনম্যান। বয়স ৩৪, মার্কিন নাগরিক। ভেনিজুয়েলার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে ডেনম্যানের যে বক্তব্য প্রচারিত হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, সেখানে বামপন্থী মাদুরো সরকারকে উৎখাত এবং তাকে গ্রেপ্তার করে দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনার কথা বলা হচ্ছে।

ভেনিজুয়েলা বলেছে যে এরা ‘ভাড়াটে’ মার্কিন সন্ত্রাসী। সশস্ত্র কায়দায় আক্রমণ করে সরকার উৎখাত করার যে ‘পরিকল্পনা’ এরা করেছিলো তা পুরো নস্যাৎ করে দেয়া হয়েছে।

মাদুরো প্রায়শই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তার দেশ আক্রমণ করার এবং তাকে হটিয়ে দেয়ার চেষ্টা করার অভিযোগ করে থাকেন। যদিও ট্রাম্প এই সপ্তাহের শুরুর দিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভেনিজুয়েলায় এমন কাজে জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট অফ মাইক পম্পে বলেছেন, আমেরিকান সরকার আমেরিকানদের ফিরিয়ে আনতে ‘যথাযথ ব্যবস্থা’ গ্রহণ করবে। বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

ভেনিজুয়েলার টিভিতে যা সম্প্রচারিত হয়েছে :

বুধবারের ভিডিওতে ৩৪ বছর বয়সী ডেনম্যান ব্যাখ্যা করেন যে কলম্বিয়ায় ভেনিজুয়েলায়ানদের প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য আমাকে নেয়া হয়েছিলো। উদ্দেশ্য হচ্ছে, প্রশিক্ষণ শেষে এরা রাজধানী কারাকাসে ফিরে গিয়ে একটি বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিবে। তারপর মাদুরোকে গ্রেপ্তার করে দেশের বাইরে নিয়ে যাবে।

বিশেষ অপারেশন বাহিনীর সাবেক সদস্য ডেনম্যান বলছেন, ‘আমি ভেনেজুয়েলারদের তাদের দেশের নিয়ন্ত্রণ ফিরিয়ে নিতে সহায়তা করছিলাম।’

ডেনম্যান বলেছেন তিনি এবং ৪১ বছর বয়সী আইরান বেরি এই অভিযান পরিচালনা করার জন্য জর্ডান গৌদ্রিউ সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। গৌদ্রিউ ফ্লোরিডা ভিত্তিক সিলভারকর্প, ইউএসএ'র প্রতিষ্ঠান প্রধান।

ভেনিজুয়েলা বলেছে, তারা আশা করে মার্কিনীরা গৌদ্রিউকে তাদের কাছে হস্তান্তর করবে। কারণ যিনি নিজেই স্বীকার করেছেন, তিনি এই অভিযানে জড়িত ছিলেন।

মাদুরোর মতে, সিলভারকর্প প্রতিষ্ঠানটি বিরোধী দলীয় নেতা জুয়ান গুইডোর সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন। আমেরিকা এবং অনেক ইউরোপীয় দেশের চোখে জোয়ান গুইডোই ভেনেজুয়েলার বৈধ নেতা হিসেবে স্বীকৃত।

মাদুরো একটি সংবাদ সম্মেলনের সময় ডেনম্যানের ভিডিও সম্প্রচারের পরে বলেছেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প এই আক্রমণের প্রত্যক্ষ মদদদাতা।’

ভেনিজুয়েলার রাষ্ট্রপতি এও বলেছেন, এসব আমেরিকানদের সুষ্ঠু বিচার করা হবে। তবে, তিনি আটককৃত ব্যক্তির অবস্থান সম্পর্কে কোনো তথ্য দেননি। তাদের কোনো আইনজীবীর অ্যাক্সেস আছে কিনা সেটাও অস্পষ্ট।

এদিকে, ভেনিজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা জুয়ান গুইডো কারো সাথে সরকার উৎখাতের পরিকল্পনায় কথা পুরে অস্বীকার করেছেন। বলেছেন এর দায় তার না। বরং গত শুক্রবার কারাগারে বিদ্রোহে অনেক মানুষ হতাহত হওয়ার ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার এটা এক সরকারি ষড়যন্ত্র মাত্র।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0732 seconds.