• বিদেশ ডেস্ক
  • ১০ মে ২০২০ ২১:২৮:৩৮
  • ১০ মে ২০২০ ২১:২৮:৩৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিরল রোগের উপসর্গ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত শিশুরা

ছবি : সংগৃহীত

গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বলেছেন, নিউইয়র্কের তিন শিশু একটি বিরল প্রদাহজনক সিনড্রোমে মারা গেছে। যার পেছনের কারণ হিসেবে করোনাভাইরাসই দায়ী বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি বলছিলেন, এটি এমন একটি রোগের বহিঃপ্রকাশ যার ফলে খুব অল্প বয়সীদের জন্য এটা মৃত্যু ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে।

শনিবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে কুমো আরো বলেছেন, তিনি এমন সিন্ড্রোম সম্পর্কে জেনে ক্রমশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছেন, যা টক্সিক শক এবং কাওয়াসাকি রোগের লক্ষণ হিসেবে প্রকাশিত হচ্ছে। তিনি বলেছেন, এতে রক্তনালীতে প্রদাহ এবং হার্টের সম্ভাব্য মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

শুক্রবার পাঁচ বছরের শিশুসহ ওই তিন শিশু এ জাতীয় লক্ষণ নিয়ে মারা গেছে যা কোভিড -১৯ বা সম্পর্কিত অ্যান্টিবডির মাধ্যমে ইতিবাচক প্রমাণিত হয়েছে; তবে এখনো এ সম্পর্কে পুরোপুরি বোঝা যায়নি।

গভর্ণর কুমো আরো বলেছেন, রাজ্যের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এমন ৩টি ঘটনার পর্যালোচনা করছেন। কারণ আগে মনে করা হয়েছিলো শিশুদের প্রতি মূলত করোনভাইরাস তত সংবেদনশীল নয়।

‘আমরা এতটা নিশ্চিত নই যে এটাই সত্য। ছোট বাচ্চা, প্রাথমিক বিদ্যালয় পড়ুয়া ছেলেমেয়েরা কাওয়াসাকি রোগ বা বিষাক্ত শক-জাতীয় সিনড্রোমের মতো লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে বলে’ কুমো নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরো যোগ করেন, ‘এটি খুব সম্ভব যে এটি বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে চলছে এবং এটা কোভিড ১৯ এর সাথে সম্পর্কিত হিসাবে ধরা পড়ছে না।’

টক্সিক শক সিন্ড্রোম এবং কাওয়াসাকি রোগের মতোই জ্বর, ত্বকের ফুসকুড়ি, গ্রন্থিগুলির ফোলাভাব এবং গুরুতর ক্ষেত্রে হার্টের ধমনীর প্রদাহ নিয়ে এ শিশুরা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। এ সিন্ড্রোমটি নতুন করে করোনভাইরাসের সাথে কোনরকম সংযুক্তি রয়েছে কিনা বিজ্ঞানীরা এখন তা নির্ধারণের চেষ্টা করছেন।

এদিকে পৃথক ব্রিফিংয়ে নিউ জার্সির গভর্নর ফিল মারফি নিশ্চিত করেছেন যে সেখানে শুক্রবার প্রকাশিত চার বছরের বাচ্চার মৃত্যু উক্ত সিনড্রোমের সাথে সম্পর্কিত নয়।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

নিউইয়র্ক করোনাভাইরাস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0751 seconds.