• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ১৫ মে ২০২০ ১৬:৩২:৫৮
  • ১৫ মে ২০২০ ১৬:৩২:৫৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ক্ষতি পোষাতে বেতন কমতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটাদের

সৌরভ গাঙ্গুলি। ছবি : সংগৃহীত

প্রাণাঘাতী করোনাভাইরাস মহামারীতে স্থবির হয়ে পড়েছে অর্থনীতির চাকা। যার ধাক্কা লেগেছে খেলাধুলাতেও। এমন অবস্থায় ভারতীয় ক্রিকাটারদের বেতন কমানোর আভাস দিলেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি। সৌরভ জানান, করোনার কারণে আইপিএল না হওয়ায় ভারতীয় বোর্ড প্রায় চারহাজার কোটি টাকা ক্ষতির মুখে। এই অবস্থায় ক্রিকেটারদের বেতন কমানোর কথা ভাবা হচ্ছে।

বোর্ড কোষাধ্যক্ষ অরুন ধূমলও জানিয়েছেন, আর্থিক অবস্থা যেদিকে যাচ্ছে তাতে ক্রিকেটারদের বেতন কমানো ছাড়া কিছু করার নেই।

ভারতীয় গ্রেডেড ক্রিকেটাররা চারটি শ্রেণিতে বিভক্ত। এ প্লাস, এ, বি এবং সি। মাত্র তিনজন ক্রিকেটার এ প্লাস। এরা হলেন বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা ও যশপ্রীত বুমরা। এরা পান সাত কোটি টাকা বছরে। ‘এ’ পর্যায়ে আছেন কুলদীপ যাদব, চেতেশ্বর পূজারা, মোহাম্মদ সামি, অজিঙ্ক রাহানে, কে এল রাহুল, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, ইশান্ত শর্মা, শিখার ধাওয়ান, রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং ঋষভ পন্থ। এরা প্রত্যেকেই বছরে পাঁচ কোটি টাকা পান।

‘বি’ পর্যায়ে আছেন উমেশ যাদব, ঋদ্ধিম্যান সাহা, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, হার্দিক পাণ্ডে ও জাযুবেন্দ্র চাহাল। এরা পান বছরে তিন কোটি টাকা।

‘সি’ পর্যায়ের খেলোয়াড়রা বছরে বেতন পান এক কোটি টাকা করে। এই তালিকায় আছেন- কেদার যাদব, ওয়াশিংটন সুন্দর, হানুমা বিহারি, শ্রেয়াস আইয়ের, দীপক চাহার, নাভদিপ সাইনি ও শার্দুল ঠাকুর।

বেতন ছাড়াও ক্রিকেটাররা টেস্ট ম্যাচ খেলার জন্যে পনেরো লক্ষ, ওডিআই খেলার জন্যে ছয় লক্ষ এবং টি-টোয়েন্টি খেলার জন্যে তিন লক্ষ টাকা করে ম্যাচ ফিস পেয়ে থাকেন, এখানেই শেষ নয় টেস্টে সেঞ্চুরি করলে কিংবা পাঁচটি উইকেট নিলে পাঁচ লক্ষ টাকা বোনাস মেলে। ডাবল সেঞ্চুরির বোনাস সাত লক্ষ টাকা।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0679 seconds.