• বাংলা ডেস্ক
  • ১৬ মে ২০২০ ১৫:৪১:৩৯
  • ১৬ মে ২০২০ ১৫:৪১:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

হ্যান্ড স্যানিটাইজার নিয়ে ডব্লিউএইচও’র নির্দেশিকা

ছবি : সংগৃহীত

সারা পৃথিবীর সবাই প্রতিমুহূর্তে রয়েছে করোনাভাইরাস আতঙ্কে। সবাইকে থাকতে বলা হচ্ছে পরিষ্কার পরিচ্ছিন্ন। বারবার বলা হচ্ছে ২০ ধরে হাত ধুয়ে নিতে। মানুষ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার চেষ্টা করছেন। সাবান-স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন, কিন্তু সেটা কী ঠিকভাবে করছে, আদৌ কী কাজে আসছে। তাই হু (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা) থেকে স্যানিটাইজার ব্যবহারের পদ্ধতি নিয়েও নানা নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

স্যানিটাইজার কেনার আগে কী কী বিষয় জানতে হবে আপনাকে?

অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার কিছু জীবাণু মারতে পারে, কিন্তু সব জীবাণু নয়। আদর্শ নিয়ম অনুযায়ী ৬০ থেকে ৯৫ শতাংশ অ্যালকোহল রয়েছে, এমন স্যানিটাইজারই সবচেয়ে ভালো। অ্যালকোহল নেই, এমন স্যানিটাইজার কিন্তু কাজেই লাগবে না কোনো।

অধিকাংশ স্যানিটাইজারের এক্সপায়ারি ডেট হয়। ওই মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেলে স্যানিটাইজারের কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়। তাই বাড়িতে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি স্যানিটাইজার রাখাও বিচক্ষণ নয়। বেশি দিন ঘরে রেখে দিলে স্যানিটাইজারের অ্যালকোহলের পরিমাণ কমে যায়।

স্যানিটাইজার কেনার আগে বোতলের গায়ে কম্পোজিশন জেনে নিন। এতে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাল ধর্ম থাকতেই হবে।

স্যানিটাইজার দিয়ে অন্তত ২০ সেকেন্ড কচলে কচলে হাত ধুতে হবে। সবচেয়ে ভালো হয় সাবান দিয়ে হাত ধোয়া। কিন্তু সব সমতল ছোঁয়ার পর হাত যদি ধোয়া সম্ভব না হয়, তবে ধুতে হবে স্যানিটাইজার দিয়ে।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0815 seconds.