• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ১৬ মে ২০২০ ২২:৪৫:৪২
  • ১৬ মে ২০২০ ২২:৪৫:৪২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সাকিবের সেই ‘অশালীন’ ভঙ্গি: মূল ঘটনা জানালেন শফিউল

ছবি : সংগৃহীত

২০১৪ সালে একটি একটি অশালীন অঙ্গভঙ্গির জন্য তিন ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাথে সাথে তিন লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছিলো। কিন্তু কী ঘটেছিলো সেদিন? কেনইবা ঘটেছিলো? ৬ বছর ধরে কেউ জানতে পারেনি সে কথা। তবে অবশেষে সেই ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন সেদিন সাকিবের পাশে থাকা দলের ফাস্ট বোলার শফিউল ইসলাম।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটিতে গুরুত্বপুর্ণ মুহূর্তে আউট হয়ে যান সাকিব আল হাসান। তার আউটের ভিডিও পুনঃপ্রদর্শনের এক পর্যায়ে ড্রেসিংরুমের দিকে টিভি ক্যামেরা তাক করা হয়। এসময় দেখা যায় সাকিব তার গোপনাঙ্গের দিকে আঙ্গুল দেখিয়ে ও টিভি ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করেন যা জায়ান্ট স্ক্রিনের পর্দায় ভেসে ওঠে।

শফিউল জানান, বাস্তবে উদ্দেশ্যমূলকভাবে কিছুই করেননি টাইগার অলরাউন্ডার। সবকিছু নিছক মজার ছলেই ঘটেছিল এবং এ বিষয়ে সাকিবের কোনো দোষই ছিল না। 

সম্প্রতি ক্রিকফ্রেঞ্জিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে শফিউল বলেন, ‘আসলে ওই ম্যাচটা আমাদের জন্য খুব ক্লোজ ছিল। ওইসময় ক্রুশিয়াল মোমেন্টে সাকিব ভাই আউট হয়ে খুব উত্তেজিত ছিল। ফ্রেশরুম থেকে ফ্রেশ হয়ে টাওয়েল পড়েই তিনি ড্রেসিংরুমে চলে আসছিলন। আসলে উনিও বুঝে নাই। ক্যামেরাটা যখন তার দিকে ধরছে তখন উনি বলেছিলেন ক্যামেরা সড়াতে। তখন হয়তো মনের অজান্তেই ওইরকম করে বসেছিলেন।’

এই ফাস্ট বোলার আরো বলেন, ‘ড্রেসিংরুমে তো অনেক ধরণের কথাই হয়। কথা বলতে বলতে আমি হাসছিলাম। ওই সময় ফানি কথাই হচ্ছিলো। আমিও হেসে দিয়েছিলাম। পরে তো ওখানে কি হয়েছিল জানতে আমাকেও ডাকা হয়েছিল। আমি তখন বলেছি আসলে অনেক ধরণের কথাই তো হয়। এছাড়া সাকিব ভাই খারাপ কিছু বলেননি। যখন সাকিব ভাই আউট হয়ে আসছে তখন হয়তো তার মনটা খারাপ ছিল। তিনি বলছিলেন, আউট হয়ে এসেছি কিন্তু ড্রেসিংরুম পর্যন্ত ক্যামেরা ধরার কি দরকার? আসলে নিজের অজান্তেই যে এত কিছু হয়ে যাবে সেটা কেউ ভাবে নাই।’

 

সংশ্লিষ্ট বিষয়

সাকিব আল হাসান

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0977 seconds.