• বিদেশ ডেস্ক
  • ২০ মে ২০২০ ১৮:৩০:৩৭
  • ২০ মে ২০২০ ১৮:৩০:৩৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আঘাতের পর থেকে শক্তি হারাবে আম্পান

ছবি : সংগৃহীত

ইতোমধ্যে বঙ্গোপসাগর উপকূলের পূর্ব দিকে সুন্দরবন ঘেঁষা পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ দিয়ে অতিক্রম করছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। অতিক্রমের সময় বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৬০ থেকে ১৮০ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে। তবে আঘাত হানার পরও ধীরে ধীরে শক্তি হারাবে আম্পান।

এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত আম্পানের রেশ থাকতে পারে। এসময় রাজ্যের কয়েকটি জেলার উপর দিয়ে যাবে আম্পান।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, 'স্থলভাগে আঘাত হানার পর কলকাতার গা ঘেঁষে উত্তর এবং উত্তর-পূর্ব দিকে এগোতে থাকবে আম্পান। এরপর নদিয়া এবং মুর্শিদাবাদ হয়ে বাংলাদেশের দিকে এগোবে ঘূর্ণিঝড়টি।'

আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার বিকেলের পর থেকে কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আবহাওয়ার উন্নতি হতে পারে।

এদিকে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দীন আহমেদ বলেন, বিকেল চারটা থেকে রাত আটটার মধ্যে আম্পান বাংলাদেশের সাতক্ষীরা, খুলনা অঞ্চল অতিক্রম করবে। এ সময় বাতাসের গতিবেগ ক্রমান্বয়ে কমতে থাকবে।

এর আগে, আবহাওয়া দপ্তরের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত এবং চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় (২০.৬ উওর অক্ষাংশ এবং ৮৭.৮ পূর্ব  দ্রাঘিমাংশ) অবস্থান করছে।

আজ দুপুর ১২ টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৮০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৭০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ২৯০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩২০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিলো। বর্তমানে এর বাতাসের গতি বেগ রয়েছে ২০০ থেকে ২২০ কিলোমিটার।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ঘূর্ণিঝড় আম্পান

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0670 seconds.