• বিদেশ ডেস্ক
  • ২১ মে ২০২০ ১২:৩৩:৫৭
  • ২১ মে ২০২০ ১২:৩৩:৫৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পতিতাবৃত্তিকে ‘অবৈধ’ করতে জার্মান নেতাদের আহ্বান

ছবি : প্রতিকী, ডয়েচে ভেলে থেকে নেয়া

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারী মোকাবেলায় পতিতালয়গুলো সাময়িকভাবে বন্ধ করেছে জার্মান সরকার। এবার তা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের আহ্বান জানালেন দেশটি বিশিষ্ট কয়েজন রাজনীতিবিদ। ১৯ মে, মঙ্গলবার তারা এই আহ্বান জানান।

দেশটির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মের্কেলের দল সিডিউ এবং সোশ্যাল ডেমোক্রেটস দলের ১৬ জন আইন প্রণেতা এ বিষয়ে একটি চিঠি লিখেছেন। ১৬টির রাজ্য চ্যান্সেলরকে সতর্ক করে জানায়, যৌনকর্মীরা ভাইরাস ছড়ানোর ক্ষেত্রে ‘সুপার স্প্রেডার’ হিসেবে কাজ করতে পারে। এমন খবর প্রকাশ করেছে ডয়েচে ভেলে।

ওই চিঠিতে বলা হয়, এটা সুস্পষ্ট হওয়া উচিত যে পতিতাবৃত্তি মহামারীর জন্য ‘সুপার স্প্রেডার’ হয়ে উঠতে পারে। যৌন ক্রিয়াকলাপগুলো শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার নিয়মের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।’

ওই চিঠিতে তারা আশা প্রকাশ করেন, পতিতালয়গুলো বন্ধ করা জার্মানির যৌনকর্মীদের সুবিধা বৃদ্ধির জন্য একটি ভালো সুযোগ হতে পারে।

চিঠিতে আরো বলা হয়, পতিতালয়গুলো পুনরায় খুলে দিলেও তা এসব নারীদের কোনো কাজে আসবে না। এর পরিবর্তে তারা চায়, শিক্ষানবিশ, প্রশিক্ষণ ও নিরাপদ চাকরি।

প্রসঙ্গত, জার্মানিতে পতিতাবৃত্তি বৈধ। কিন্তু যৌনকর্মীরা কোথায় এবং কীভাবে পরিচালনা করবেন সে বিষয়ে রাজ্য এবং শহরগুলো বিভিন্ন বিধি-নিষেধ জারি করে থাকে। গত মার্চে জনজীবন ও শারীরিক দূরত্বের মতো বিষয়গুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর থেকে দেশটির সব পতিতালয়গুলো বন্ধ রয়েছে। সরকারি হিসাব মতে জার্মানিতে ৩৩ হাজার যৌনকর্মী রয়েছে। কিন্তু বাস্তবে এই সংখ্যা ৪ লাখেরও বেশি হবে।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0870 seconds.