• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২২ মে ২০২০ ১৬:০২:৩৬
  • ২২ মে ২০২০ ১৬:০২:৩৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানি ছেলে, বাংলাদেশি মেয়ে, বিয়ে ভিডিও কনফারেন্সে

ছবি : সংগৃহিত

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রেমের শুভপরিণতি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশি সাবরিনা ও পাকিস্তানের উমের। ২১ মে, বৃহস্পতিবার রাতে বিয়ে হয় তাদের।

কনে মুরসালিন সাবরিনা জয়পুরহাট পৌর শহরের কাশিয়াবাড়ি এলাকার ব্যাংক কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়ে। আর বর পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতান শাহরুখনে আলম কলোনীর ফল ব্যবসায়ী বিলাল আহম্মেদের ছেলে মুহাম্মদ উমের।

কনের পরিবার জানিয়েছে, সাবরিনা ‘ইউনিভার্সিটি অফ দ্য পিপল’ নামে আমেরিকান একটি অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে লেখাপড়া করছেন। তখন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাকিস্তানের মুহাম্মদ উমেরের সঙ্গে পরিচয় হয় সাবরিনার। এর পর ধীরে ধীরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গড়ে ওঠে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। বিষয়টি দুই পরিবারের অভিভাবকদের ২০১৯ সালে জানানো হয়। অভিভাবকরা তাদের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। বিয়ের দিন তারিখও ঠিক হয়েছিল। উমেরসহ তার পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশে আসার জন্য ২০২০ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি ভিসার আবেদন করেন। ভিসা নিয়ে মার্চ মাসেই উমেরের পরিবার বাংলাদেশে এসে বিয়ে সম্পন্ন করার কথা ছিল। করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে যায় তাদের বিয়ে। অবশেষে সাবরিনার বাবার সঙ্গে যোগাযোগ করে অনলাইনে বিয়ে সম্পন্নের প্রস্তাব করেন উমেরের বাবা বিলাল। বিষয়টি মেনে নিয়ে উভয়পরিবার বৃহস্পতিবার রাতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিবাহ সম্পন্ন করে।

সাবরিনার বাবা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মেয়ের সঙ্গে পাকিস্তানি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক প্রথমে মেনে নিতে চাইনি। পরে তাদের খোঁজখবর নিয়ে ভাল লেগেছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে জামাই ও তার পরিবার এসে আনুষ্ঠানিকতা সম্পূর্ণ করে মেয়েকে নিয়ে যাবে।

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0712 seconds.