• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৩ মে ২০২০ ১০:৩৩:৩৭
  • ২৩ মে ২০২০ ১০:৩৩:৩৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

৩ লাখ ৪০ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা

ছবি : সংগৃহীত

নভেল করোনাভাইরাসে সারা বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৪০ হাজার ছাড়িয়েছে। আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৫৩ লাখের বেশি। আক্রান্ত ও মৃত্যুর পাশাপাশি বিশ্বের ৮৬ শতাংশ কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, আজ ২৩ মে, শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত মিশ্বে মোট ৫৩ লাখ ৪ হাজার ৩৪০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ লাখ ৪০ হাজার ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

এর বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১ লাখ ৫৮ হাজার ৫৬৯ জন। এছাড়া এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৮ লাখ ৫ হাজার ৭৬৭ জন, যাদের মধ্যে ৪৪ হাজার ৫৮২ জনের অবস্থা গুরুতর।

আক্রান্ত ও মৃতের হিসেবে শীর্ষ রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মোট ১৬ লাখ ৪৫ হাজার ৯৪ জন প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৯৭ হাজার ৬৪৭ জন।

দেশটির ৪ লাখ ৩ হাজার ২০১ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তি সুস্থ হয়েছেন। এখনো ১১ লাখ ৪৪ হাজার ২৪৬ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছেন ১৭ হাজার ১০৯ জন।

রাশিয়াকে হটিয়ে বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৩২ হাজার ৩৮২ জন। একদিনে নয় শতাধিক মানুষের মৃত্যু নিয়ে সেখানে মোট ২১ হাজার ১১৬ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনাভাইরাস।

বিপরীতে দেশটির ১ লাখ ৩৫ হাজার ৪৩০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখনো চিকিৎসাধীন ১ লাখ ৭৫ হাজার ৮৩৬ জন, যাদের ৮ হাজার ৩১৮ জনের অবস্থা গুরুতর।

আক্রান্তের হিসেবে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। সেখানে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ২৬ হাজার ৪৪৮ জন। যাদের মধ্যে মৃত ৩ হাজার ২৪৯ জন ও সুস্থ ৯৯ হাজার ৮২৫ জন। দেশটিতে এখনো ২ লাখ ২৩ হাজার ৩৭৪ জন চিকিৎসাধীন, এদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় ২ হাজার ৩০০ জন।

এর পরের অবস্থানেই আছে স্পেন। দেশটিতে ২ লাখ ৮১ হাজার ৯০৪ জন আক্রান্তের মধ্যে ইতোমধ্যে ২৮ হাজার ৬২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ৯৯ হাজার ৮২৫ জন। আর চিকিৎসাধীন ৫৬ হাজার ৩১৮ জন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন ১ হাজার ১৫২ জন রোগী।

যুক্তরাজ্যে মোট ২ লাখ ৫৪ হাজার ১৯৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মৃত ৩৬ হাজার ৩৯৩ জন। ১ হাজার ১৫২ জনের অবস্থা গুরুতর। দেশটি সুস্থ ও চিকিৎসাধীন রোগীর হিসেব দেয়নি।

ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ২৮ হাজার ৬৫৮ জন। সেখানে ৩২ হাজার ৬১৬ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লাখ ৩৬ হাজার ৭২০ জন। এখনো চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৫৯ হাজার ৩২২ জন, গুরুতর অবস্থায় আছেন ৫৯৫ জন।

ফ্রান্সে মোট ১ লাখ ৮২ হাজার ২১৯ জনের শরীরে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ২৮ হাজার ২৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ৬৪ হাজার ২০৯ জন। বর্তমানে দেশটিতে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৮৯ হাজার ৭২১ জন, যাদের মধ্যে ১ হাজার ৭০১ জনের অবস্থা গুরুতর।

এছাড়া বেলজিয়ামে ৯ হাজার ২১২ জন, জার্মানিতে ৮ হাজার ৩৫২ জন, ইরানে ৭ হাজার ৩০০, মেক্সিকোতে ৬ হাজার ৯৮৯ জন, কানাডায় ৬ হাজার ২৫০ জন, নেদারল্যান্ডসে ৫ হাজার ৭৮৮ জন, চীনে ৪ হাজার ৬৩৪ জন, তুরস্কে ৪ হাজার ২৭৬ জন, ভারতে ৩ হাজার ৭২৬ জন, পেরুতে ৩ হাজার ২৪৪,  সুইডেনে ৩ হাজার ৯২৫ জন, ইকুয়েডরে ৩ হাজার ৫৬ জনের প্রাণ কেড়েছে নভেল করোনাভাইরাস।

এতে আক্রান্ত হয়ে সুইজারল্যান্ডে ১ হাজার ৯০৩ জন, আয়ারল্যান্ডে ১ হাজার ৫৯২ জন, ইন্দোনেশিয়ায় ১ হাজার ৩২৬ জন, পর্তুগালে ১ হাজার ২৮৯ জন, রোমানিয়ায় ১ হাজার ১৬৬ জন, পাকিস্তানে ১ হাজার ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পোল্যান্ডে ৯৮২ জন, ফিলিপাইনে ৮৫৭ জন, জাপানে ৭৯৬ জন, মিসরে ৭০৭ জন, অস্ট্রিয়ায় ৬৩৫ জন, চিলিতে ৬৩০ জন, ইউক্রেনে ৫৮৮ জন, আলজেরিয়ায় ৫৮২ জন, ডেনমার্কে ৫৬১ জন,  হাঙ্গেরিতে ৪৭৬ জন, ডোমিনিকান রিপাবলিকে ৪৫৬ জন, আর্জেন্টিনায় ৪৩৩ জন, বাংলাদেশে ৪৩২ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৩৯৭ জন, সৌদি আরবে ৩৬৪ জন, চেক রিপাবলিকে ৩১২ জন, ফিনল্যান্ডে ৩০৬ জন, পানামায় ২৯৫ জন, ইসরায়েলে ২৭৯ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ২৬৬ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ২৪১ জন, সার্বিয়ায় ২৩৭ জন, মালদোভায় ২৩৭ জন, নরওয়েতে ২৩৫ জন, বলিভিয়ায় ২৩০ জন, নাইজেরিয়ায় ২২১ জন, আফগানিস্তানে ২০৫ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0691 seconds.