• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৩ মে ২০২০ ১৩:০৩:৫৭
  • ২৩ মে ২০২০ ১৩:০৪:৪৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

করাচিতে বিমান বিধ্বস্ত, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৭

ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের করাচিতে প্রায় শতাশিক যাত্রী নিয়ে আবাসিক এলাকায় বিধ্বস্ত হয়। এ ঘটনায় এয়ারবাসটির ধ্বংসাবশেষ থেকে এখন পর্যন্ত ৯৭ জন ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া দুইজন ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থার (পিআইএ) এ–৩২০ এয়ারবাসটি ২২ মে, শুক্রবার ৯১ জন যাত্রী ও ৮ জন ক্রু নিয়ে লাহোর থেকে করাচির উদ্দেশে যাচ্ছিল। কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এমন খবর প্রকাশ করে দেশটির প্রধানসারির সংবাদমাধ্যম ডন।

করাচির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের কাছে একটি মডেল কলোনিতে এ৩২০ এয়ারবাসটি বিধ্বস্ত হয়। বিমানটির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরেই অবতরণের কথা ছিলো।

উদ্ধার হওয়া যাত্রীদের মধ্যে জাফর মাসুদ নামে একজন ব্যাংক কর্মকর্তা ও মেহাম্মদ জুবায়ের নামে অপর একজন যাত্রী রয়েছেন। তাদের অবস্থা গুরুতর বলে নিশ্চিত করেছেন সিন্দু প্রদেশের তথ্য মন্ত্রী নাসির হুসায়েন শাহ।

এর আগে ইধি ফাইন্ডেশনের মুখপাত্র সাদ ইধি জানিয়েছিলেন, বিভিন্ন হাসপাতালে ৩৫ জনের মরদেহ নিয়ে গেছেন তারা। এ ছাড়া আবাসিক ওই এলাকা থেকে আরো ২০-২৫ জন ব্যক্তিকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হয়।

পিআইএ’র একজন কর্মকর্তা জানান, উড়োজাহাজটি অবতরণের ঠিক আগে দিয়ে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে চাকা খুলতে পারছিল না।

এদিকে পিআইএ’র প্রধান নির্বাহী এয়ার ভাইস মার্শাল এরশাদ মালিক জানান, পাইলট ট্রাফ্রিক কন্ট্রোল রুমে যান্ত্রিক ত্রুটির কথা জানিয়েছিলেন।

এ ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এছাড়াও দুর্ঘটনার কারণ জানতে যথাযথভাবে তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0781 seconds.