• ফিচার ডেস্ক
  • ৩০ মে ২০২০ ২১:৩২:৪২
  • ৩০ মে ২০২০ ২১:৩২:৪২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যের জন্য নতুন ফাঁদ হ্যাকারদের

ছবি : সংগৃহীত

করোনা ভাইরাসের কারনে ঘরবন্দী মানুষ। যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম স্যোসাল মিডিয়া। লকডাউন থাকায় ৪০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার। ব্যবহার বাড়ায় এতেও নজর পড়েছে হ্যাকারদের। সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপ মাধ্যম ব্যবহার জালিয়াতি চেষ্টার খবর বের হয়েছে।

ওয়েবেটাইনফো এর মতে, অনেক ব্যবহারকারীরা মনে করেন হোয়াটসঅ্যাপের প্রযুক্তিগত দল ইউজারের চ্যাট পড়তে পারেন। সেইকারণেই তারা রেজিস্ট্রশনের সময় ভ্যারিফিকেশনের ৬ সংখ্যার কোড চায়। সম্প্রতি এই ধরণের ইউজারকে বিভ্রান্ত করে তাদের জালিয়াতির জালে ফাঁসাতে চাইছে স্ক্যামাররা।

হোয়াটসঅ্যাপের লোগো ব্যবহার করে, কোড যাচাই করার জন্য উৎসাহিত করছে হ্যাকাররা। কিন্তু মনে রাখবেন, হোয়াটসঅ্যাপ সাধারণত ব্যবহারকারীদের কাছে এই ধরনের মেসেজ পাঠায় না। আপনার ফোনের কোড স্ক্যামারদের হাতে পৌঁছে গেলে ব্যবহারকারীর হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে তারা। আপনার সমস্ত ব্যাকআপ ফটো ডাউনলোড করা থেকে শুরু করে যাবতীয় ফোন নম্বর ও মেসেজ তারা পেয়ে যেতে পারে।

যদি আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে যায় বলে মনে হয় আপনার, তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডিভাইস থেকে অ্যাকাউন্টটি সাইন আউট করে ফেলুন।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0717 seconds.