• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ জুন ২০২০ ১০:২৮:৫৩
  • ০১ জুন ২০২০ ১০:২৮:৫৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

করোনা ঠেকাতে স্বপ্নাদেশ পেয়ে নরবলি!

ফাইল ছবি

প্রাণঘাতী মহামারী নভেল করোনাভাইরাস বিনাশে দেবতাকে তুষ্ট করতে স্বপ্নাদেশে নরবলি দিয়েছেন ভারতের ওড়িষ্যার এক পুরোহিত। পরে ওই পুরোহিত পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করলে ঘটনা জানা যায়। গত ২৭ মে, বুধবার রাতে ওই পুরোহিত ওড়িষ্যার কটকের নরসিংহপুর থানা এলাকার বাঁধহুদা গ্রামের এক মন্দিরে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরদিন সকালে স্থানীয় থানায় আত্মসমর্পণ করেন ৭২ বছর বয়সী পুরোহিত সংসারী ওঝা। তিনি তদন্তকারীদের কাছে দাবি করেন, করোনাভাইরাসকে বিনাশ করতে মন্দিরের দেবীর কাছ থেকে নরবলি দেয়ার স্বপ্নাদেশ পেয়েছিলেন তিনি।

যে কারণে সরোজকুমার প্রধান (৫২) নামের ওই ব্যক্তিকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মাথা কেটে ফেলেন ও পুরোহিত।

তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন ভিন্ন কথা। তারা জানান, সরোজের সঙ্গে ওই গ্রামের একটি আমবাগান নিয়ে পুরোহিত সংসারী ওঝার দীর্ঘ দিন ধরে বিবাদ চলছিল। সে ঘটনার জেরেই এমন হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন তিনি।

তদন্তকারীরা জানান, ঘটনার রাতে সরোজের সঙ্গে নরবলি নিয়েই তর্কাতর্কি হয় বলে তাদের কাছে জানান সংসারী ওঝা। এরই এক পর্যায়ে সরোজের মাথায় কুড়াল দিয়ে আঘাত করেন তিনি। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান সরোজ। পরদিন সকালেই পুলিশের কাছে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন এই পুরোহিত।

নিহত সরোজের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে উল্লেখ করে কটকের ডিআইজি (সেন্ট্রাল রেঞ্জ) আশিসকুমার সিংহ বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, বুধবার রাতে ঘটনার সময় মত্ত অবস্থায় ছিলেন সংসারী ওঝা। পরের দিন সকালে তার হুঁশ ফিরলে পুলিশের কাছে এসে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। খুনের কথা স্বীকারও করে নিয়েছেন সংসারী।’

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1536 seconds.