• বিদেশ ডেস্ক
  • ০২ জুন ২০২০ ১০:২২:৫৫
  • ০২ জুন ২০২০ ১০:২২:৫৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিক্ষোভ দমনে সেনা নামাচ্ছেন ট্রাম্প

ফাইল ছবি

যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে চলা সহিংস বিক্ষোভ দমনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দেশটির বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের সাথে এক কনফারেন্স কলে এমন কথা বলেন তিনি। এদিকে সন্ধ্যা থেকে দেশটির প্রশাসনিক রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

আজ ২ জুন, সোমবার বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের উদ্দেশ্যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ‘আপনারা দুর্বলতার পরিচয় দিচ্ছেন, শক্ত হাতে আপনাদের এ বিক্ষোভ দমন করতে হবে।’

সেই সাথে তিনি ন্যাশনাল গার্ডকেও বিক্ষোভ দমনে কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। বিক্ষোভকারীদেরকে ‘সরকারি সম্পদ বিনষ্টকারী’ আখ্যা দিয়ে ট্রাম্প তাদের দীর্ঘ মেয়াদে আটক রাখার নির্দেশ জারির দাবি জানান।

বিক্ষোভকারীদের দমনে ন্যাশনাল গার্ডের কঠোর ভূমিকার প্রশংসা করে টুইটারে বার্তাও দিয়েছেন ট্রাম্প। সেইসাথে তিনি বলেন, ‘প্রথম রাতেই যদি মেয়রেরা ওই দমন অভিযান চালাতো তাহলে কোনো সমস্যাই হতো না।’

বিক্ষোভকারীদের কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এগুলি শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের কাজ নয়। আমি দাঙ্গা, লুটপাট, ভাঙচুর, হামলা এবং সম্পত্তির অযৌক্তিক ধ্বংস বন্ধ করতে সেনাবাহিনী মোতায়ন করছি।’

এদিকে সোমবার সন্ধ্যা থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে জারি করা কারফিউ প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, ‘এ কারফিউটি কঠোরভাবে প্রয়োগ করা হবে। যে কোনো নিয়ম ভঙ্গকারীকে আইনের আওতায় আনা হবে, আটক করা হবে এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’

যে কোন উপায়ে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়া ‘দাঙ্গা’ এবং ‘অনাচারে’র অবসান ঘটানো হবে বলেও সতর্ক করেন দেন তিনি।

তবে ট্রাম্পের এমন কঠোর বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন দেশটির বেশ ক’টি অঙ্গরাজ্যের গভর্নর। তারা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে দেশের বিভিন্ন মত ও পথের মাঝে বিচ্ছিন্নতা সৃষ্টি না করে ঐক্য প্রতিষ্ঠা করার পরামর্শ দেন।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0830 seconds.