• বিদেশ ডেস্ক
  • ২০ জুন ২০২০ ২১:৩১:৪০
  • ২০ জুন ২০২০ ২১:৩১:৪০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

দীর্ঘসময় বসে থাকলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে : গবেষণা

ছবি : প্রতিকী

নতুন একটি গবেষণায় দেখা গেছে যারা দীর্ঘক্ষন বসে থাকেন তাদের ক্যান্সারের ঝুঁকি বেশি। JAMA অনকোলজিতে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত নতুন এই গবেষণায় এমনই দাবি করা হয়েছে। ফলাফলে দেখা গেছে, খুব বেশি বসে থাকলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের এমডি অ্যান্ডারসন ক্যান্সার সেন্টারের ক্লিনিকাল ক্যান্সার প্রতিরোধের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সুসান গিলক্রিস্ট বলেছেন, ‘এটি প্রথম সমীক্ষা যা স্পষ্টতই নড়াচড়া এবং ক্যান্সারের মৃত্যুর মধ্যে যোগসূত্র স্থাপন করিয়ে দেয়।’

তবে প্রতিদিন ৩০ মিনিটের হালকা, মাঝারি বা জোরালো শারীরিক ক্রিয়াকলাপের সেই ঝুঁকি কমিয়ে দিতে পারে বলে ডা. সুসান যুক্ত করেন।

সুসান গিলক্রিস্ট একটি বলেন, ‘আমাদের অনুসন্ধান আরো শক্তিশালী করে প্রমাণ করে যে ‘কম সময় বসে থাকা এবং হাঁটাচল করা জরুরি।’

একটি অনুদৈর্ঘ্য অধ্যয়ন যা ২০০৯ থেকে ২০১৩ সময়কালের জন্য টানা সাত দিন জেগে থাকার সময় করা হয়েছিল। এ সময়ে প্রায় ৮ হাজার জনকে ট্র্যাকিং ডিভাইস বা অ্যাকসিলোমিটার পরতে দেয়া হয়েছিল। তবে, এ গবেষণার শুরুতে কোনো ব্যক্তিরই ক্যান্সার ছিলো না।

অংশগ্রহনকারীরা সবাই রিগার্ডস (REGAREDS) নামে একটি বৃহত্তর, অনুদৈর্ঘ্য অধ্যয়নের অংশ ছিলো যারা স্ট্রোকের ভৌগলিক ও বর্ণগত পার্থক্যের কারণ অনুসন্ধানে ২০০৩ থেকে ২০০৭ সাল অবধি করা হয়েছিল। এজন্য ৪৫ বছরের বেশি বয়সী ত্রিশ হাজারের বেশি আমেরিকান প্রাপ্তবয়স্কদের এজন্য বেছে নেয়া হয়েছিল।

ইউএস ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ হেলথ এর অর্থায়নে রিগার্ডস তদন্ত করছে, কেন দক্ষিণী এবং কৃষ্ণাঙ্গদের স্ট্রোক এবং ভাস্কুলার রোগ বেশি হয়! এর সাথে চিন্তার বৈকল্য এবং স্মৃতিভ্রংশ মিলে পরিচালিত হয়- যাকে তথাকথিত ‘স্ট্রোক বেল্ট’ বলা হয়ে থাকে।

পাঁচ বছরের ফলো-আপ করার পরে, গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন যেসব লোকেরা পরিশ্রমপূর্ণ কাজ করে না তাদের ক্যান্সারে ঝুঁকি যারা নিয়মিত পরিশ্রম করে তাদের চেয়ে কমপক্ষে ৮২% বেশি ছিলো।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0742 seconds.