• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০ জুন ২০২০ ২২:০১:২৫
  • ২০ জুন ২০২০ ২২:০১:২৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ভোল্টি সেবা চালু করলো গ্রামীণফোন

ছবি : সংগৃহীত

কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক মহামারির কারণে প্রতিদিনকার জীবনে আমরা নতুন স্বাভাবিকতায় অভ্যস্ত হয়ে পড়ছি। আর নতুন এ পরিস্থিতিতে দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে কানেক্টিভিটি। ডিজিটাল বাংলাদেশের কানেক্টিভিটি পার্টনার হিসেবে বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন উৎকর্ষের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের সম্ভাবনা উন্মোচনে গ্রামীণফোন ফোরজি/এলটিই’র সর্বোচ্চ সুবিধা পৌঁছে দিতে কাজ করেছে।

এরই ধারাবাহিকতায়, দেশজুড়ে VoLTE (ভয়েস ওভার এলটিই) সেবা চালু করলো গ্রামীণফোন। প্রযুক্তির এই অগ্রগতিতে ফোরজি/এলটিই’র কাভারেজের অধীন এলাকায় ভয়েস কলে গ্রাহক অভিজ্ঞতা উন্নত হবে। এক্ষেত্রে, এ সেবা উপভোগে গ্রাহকদের VoLTE সমর্থনযোগ্য হ্যান্ডসেট, ফোরজি সিম এবং কাভারেজ থাকতে হবে।

দেশজুড়ে গ্রাহকদের প্রযুক্তিগত উন্নয়নের সুযোগ তৈরির মাধ্যমে গ্রাহকদের উন্নত অভিজ্ঞতা প্রদানের লক্ষ্যে গ্রামীণফোন আধুনিক প্রযুক্তিগত সেবা চালুর মাধ্যমে কানেক্টিভিটি পার্টনার হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।  

VoLTE উন্মোচন নিয়ে গ্রামীণফোনের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাজ্জাদ হাসিব বলেন, ‘গ্রাহকদের জন্য বিস্তৃত ফোরজি/এলটিই কাভারেজ নিশ্চিত করতে আমরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছি। দেশজুড়ে VoLTE সেবার উন্মোচন ফোরজি/এলটিই নেটওয়ার্কে গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সম্ভাবনা উন্মোচনে আমাদের সুযোগ করে দিয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রযুক্তির সুবিধা পৌঁছে যাওয়া উচিৎ, বিশেষ করে আমাদের নতুন স্বাভাবিকতায় যেখানে যোগাযোগ প্রযুক্তি আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। প্রযুক্তির এ অগ্রযাত্রার মাধ্যমে মানসম্পন্ন সেবা দিয়ে বাংলাদেশকে সংযুক্ত করার ক্ষেত্রে আমাদের দায়িত্ব আরও অর্থবহ হয়ে উঠবে। আমি আমাদের পার্টনার, নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও মূল্যবান গ্রাহকদের ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা ডিজিটাল বাংলাদেশ যাত্রায় আমাদের প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন।’  

VoLTE (ভয়েস ওভার এলটিই)  হলো এমন একটি প্রযুক্তি যার মাধ্যমে ফোরজি/এলটিই নেটওয়ার্কে ভয়েস কল করা যায়। এ সেবার মাধ্যমে কলের ক্ষেত্রে দু’জন গ্রাহক ৫০ শতাংশ দ্রুততর কল সংযোগ সময় এবং এইচডি মানসম্পন্ন ভয়েস কলের অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। VoLTE এর মাধ্যমে গ্রাহকেরা ভয়েস কলের সময়েও ফোরজি নেটওয়ার্কের অন্তর্ভুক্ত থাকবেন এবং নিরবচ্ছিন্নভাবে উচ্চগতির ফোরজি ইন্টারনেটের অভিজ্ঞতা নিতে পারেন। এছাড়াও, VoLTE গ্রাহকদের ইনডোর নেটওয়ার্কের অভিজ্ঞতা আরও সমৃদ্ধ করবে। 

গ্রামীণফোন গ্রাহকরা নিয়মিত কলরেটে এ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটে VoLTE সমর্থনযোগ্য হ্যান্ডসেটের তালিকা দেয়া আছে এবং নতুন হ্যান্ডসেট এ নেটওয়ার্কে আপডেট হলে সে অনুযায়ী ওয়েবসাইটের তথ্যও হালনাগাদ করা হবে। গ্রাহকের কাছে ফোরজি সিম, ফোরজি কাভারেজ এবং প্রয়োজনীয় সেটিংস সহ VoLTE হ্যান্ডসেট (গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটে তালিকাভুক্ত) থাকলে তারা স্বয়ংক্রিয়ভাবে VoLTE সেবা উপভোগ করবেন। 

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভোল্টি গ্রামীণফোন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0907 seconds.