• বিনোদন ডেস্ক
  • ২৭ জুন ২০২০ ১৫:৫৫:১৫
  • ২৭ জুন ২০২০ ১৫:৫৫:১৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছেন বিপাশাও

বিপাশা বসু। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিপাশা বসুকেও বর্ণবৈষম্যের শিকার হতে হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামের নিজস্ব অ্যাকাউন্টের এক পোস্টে এই তথ্য জানান বিপাশা। তাকে ছোট বেলা থেকেই ‘কালো’ ডাকা হতো বলেও জানান তিনি। এমন খবর প্রকাশ করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিন।

সম্প্রতি মার্কিন নাগরিক জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার পর সারবিশ্বে বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভ দেখা দেয়। সেই হাওয়া লাগে ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’ ক্রিমেও। তাই বিতর্কের অবসান ঘটাতে ক্রিমের নাম থেকে ‘ফেয়ার’ শব্দটিই বাদ দিচ্ছে হিন্দুস্তান ইউনিলিভার। আর সেই পোস্টটিকে শেয়ার করেই বিপাশা বসু ইনস্টাগ্রামে এসব কথা লিখেছেন।

‘কালো’‌ ডাকটা জীবনের অঙ্গ হয়ে উঠেছিল বিপাশার। শুরুটা তার পরিবার থেকেই- ‘‌বিদিশার (‌বিপাশার বোন)‌ থেকে বিপাশা একটু বেশি কালো তাই না?‌’‌

বলিউডে এসেও এমন কথা শুনতে হয়েছে বিপাশার। বলিউডের প্রথম সিনেমা ‘অজনবি’তে ‘‌শ্যামলা মেয়েটি দারুণ অভিনয় করেছে’। বিপাশা অবাক হন, কেন তার জন্য এই বিশেষণটাই এতটা গুরুত্বপূর্ণ!‌

এরকম আরো উদাহরণ তিনি দিয়েছেন। সিনেমায় পা রাখার আগে ১৫/‌১৬ বছর বয়সে তিনি প্রথম মডেলিং করেন। একটি প্রতিযোগিতায় জেতার পর কাগজে বড় বড় করে লেখা হল, ‘‌কলকাতার শ্যামবর্ণা মেয়ে প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়েছে।’‌

নিউইয়র্কে মডেলিং করার সময়ে ক্রমে উপলব্ধি করেন, তার এই ‘‌শ্যামলা’ গায়ের রঙই তাকে বাকিদের থেকে আলাদা করছে। কেন, তা তিনি বুঝতে পারলেন না। কিন্তু এটার জন্যই তিনি প্রাধান্য পাচ্ছিলেন কাজের ক্ষেত্রে। তার মতে ‘‌সেক্স অ্যাপিল’‌ সম্পূর্ণই একজন মানুষের অন্তরের বিষয়। গায়ের রংয়ের সঙ্গে তার কোনো সম্পর্কই নেই। কিন্তু বলিউডে তার ‘‌সেক্স অ্যাপিল’‌র সঙ্গে বারবার যোগ করা হত তার ‘‌শ্যামলা’ গায়ের রঙ।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0679 seconds.