• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৭ জুন ২০২০ ১৯:২৪:৪৩
  • ২৭ জুন ২০২০ ১৯:২৪:৪৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ভারতের বিরাট অংশ দখল করেছে চীন

চীন সেনাবাহিনী। ছবি: সংগৃহীত

লাদাখে সীমান্ত নিয়ে উত্তেজনার মধ্যেই ভারতের বিরাট অংশ দখল করেছে চীন সেনাবাহিনী। দেশটির পিপি-১৪ চীনা সেনা প্রবেশ করেছে, এখানেই সংঘর্ষে ভারতের অন্তত ২০ জন সেনা নিহত হয়। তাই চীন কতটা জমি দখল করেছে তার প্রকৃত তথ্য জানার দাবি করেছেন কংগ্রেস নেতা ও দেশটির সাবেক প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী পল্লম রাজুর।

প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের মতে, পরিকল্পিত ভাবে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখাকে ক্রমশ ভারতের দিকে ঠেলে দেয়াটা চীনের পুরনো কৌশল। এ বারে তাতে সাফল হয়েছে বেজিং। এমন খবর প্রকাশ করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার।

এ বিষয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেসের অভিযোগ, ইতোমধ্যে চীনা সেনারা ১৮ কিলোমিটার ভেতরে ঢুকে এসেছে। আর ২৫ কিলোমিটার এগোলেই ডিবিও সড়কের কাছে থাকা গুরুত্বপূর্ণ এয়ারস্ট্রিপ দখল করে নেবে তারা।

সাবেক প্রতিরক্ষা পল্লম রাজুর বলেন, প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার ৪ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত ইতোমধ্যেই বাঙ্কার, ছাউনি ও নজরদারি পোস্ট তৈরি করেছে চীন সেনারা। এখন নয়াদিল্লির উদ্বেগ বাড়িয়ে ফিঙ্গারগুলোর মাথাতেও ঘাঁটি বানানো শুরু করেছে তারা। তা ধরা পড়েছে উপগ্রহ চিত্রে।

এদিকে নরেন্দ্র মোদি সরকারকে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটির সাবেক মেজর জেনারেল জি ডি বক্সীও। তিনি এক টুইটে বলেন, সব কিছু ঠিক নেই পশ্চিম ফ্রন্টে। চীন সেনারা প্রথম লাদাখে সংকট তৈরি করতে ষষ্ঠ ইনফ্যান্ট্রি ডিভিশনকে নিয়ে এসেছিল। এ বার তারা চতুর্থ ডিভিশনকে মোতায়েন করেছে ডিবিও ও ডেপসাং’র বিপরীতে। এস-৪০০ (মিসাইল সিস্টেম) ও বসিয়েছে চীন। তাই সাবধান হওয়ার সময় এসেছে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

এলাকা দখল লাদাখ চীন ভারত

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0645 seconds.