• বিদেশ ডেস্ক
  • ০২ জুলাই ২০২০ ১১:০৮:২৮
  • ০২ জুলাই ২০২০ ১১:০৮:২৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ছয় বছর পর জেলের ভেতর বোনের ধর্ষককে খুন

ছবি : সংগৃহীত

এক-দুই বছর নয়, ছয় বছর আগে ধর্ষণের শিকার বোনের আত্মহত্যার ঘটনার শোধ নিতে ধর্ষককে খুন করলেন ভাই। তাও আবার জেলের ভেতর! এ যেন সিনেমার গল্পকেও হার মানিয়েছে। গত ২৯ জুন, সোমবার ভারতের দিল্লির তিহার জেলের ভেতর এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়।

তিহারের ৮ নম্বর জেলের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে জাকির নামে এক কয়েদি মেহেতাব নামে অন্য এক কয়েদিকে ধারাল অস্ত্র দিতে কুপিয়ে হত্যা করে।

এর পেছনের ঘটনা : ২০১৪ সালে আম্বদকরনগরে জাকিরের নাবালিকা বোনকে ধর্ষণ করে মেহেতাব। তার বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলার পর শেষপর্যন্ত তার স্থান হয় তিহার জেলে।

ওই ধর্ষণের ঘটনা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে জাকিরের নাবালিকা বোন। সেই ঘটনাই জাকিরের জীবনের মোড় বদলে দেয়। সে প্রতিজ্ঞা করে বোনের ধর্ষণের প্রতিশোধ নেয়ার। কিন্তু অপরাধী তিহার জেলে থাকায় হাত-পা গুটিয়ে থাকে সে।

এদিকে একটি হত্যা মামলায় অন্য অনেকের সঙ্গে জাকিরের নামও জড়িয়ে যায়। সেই মামলায় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের পর তার স্থান হয় তিহার জেলে। এতে করে প্রতিশোধ নেয়ার মোক্ষম সুযোগ পেয়ে যায় জাকির।

দিল্লি পুলিশের ভাষ্য, সম্প্রতি জাকিরকে জেল নম্বর ৮ থেকে ৪নং ওয়ার্ডে নিয়ে আসা হয়। সূত্র জানায়, সেখানে অন্যান্য কয়েদিদের সঙ্গে মারামারি হলে সে পুলিশকে ৪নং ওয়ার্ডে জায়গা করে দিতে অনুরোধ করে। আর সেই ওয়ার্ডের একতলায় আগে থেকেই ছিল মেহেতাব।

পুলিশের দাবি, গত ২৯ জুন সকালে অন্যান্য কয়েদিরা যখন প্রার্থনায় ব্যস্ত তখন জাকির তখন পেয়ে যায় বহুদিন ধরে লালিত প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ। সে উঠে একতলায় গিয়ে মেহেতাবকে খুঁজে বের করে। এরপর তাকে ধারালো কোনো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। হামলার পরপরই মেহেতাবকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় জাকিরের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ সূত্র।

বাংলা/এসএ/

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0853 seconds.