• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৫ জুলাই ২০২০ ২২:২৫:১৮
  • ০৫ জুলাই ২০২০ ২২:২৫:১৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘পরকীয়ায় বাধা’, জামাইকে কোপালো শ্বশুর-শ্যালক

ফাইল ছবি

মেয়ের জামাইকে কুপিয়ে আহত করেছেন শ্বশুর ও শ্যালক। মেয়ের পরকীয়ায় জামাই বাধা দেয়ায় এমন ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে মুর্শিদাবাদের সুতিতে। আহত জামাইয়ের নাম দেবাশিস মণ্ডল। তিনি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এদিকে এ ঘটনায় শ্বশুর ও শ্যালককে আটক করেছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম ‘সংবাদ প্রতিদিন’এর খবরে বলা হয়, দেবাশিস মণ্ডল দমদমের বাসিন্দা। মুর্শিদাবাদ জেলার সুতির মহেশাইলের এক তরুণীর সঙ্গে বিয়ে হয় তার। বিয়ের পর থেকেই স্বামীকে নিয়ে বাপের বাড়িতে থাকার আবদার করতে থাকে দেবাশিসের স্ত্রী। চাপে পড়ে ঘরজামাই থাকতে রাজিও হয়ে যান দেবাশিস। সেখানে টিউশনের পাশাপাশি শ্বশুরের জমি-জায়গা দেখাশোনা করতেন তিনি। প্রথমে সবকিছু স্বাভাবিক চললেও কিছুদিন পর দেবাশিস বুঝতে পারেন, স্ত্রীর বাপের বাড়িতে সংসার পাতার পিছনে কারণ তার প্রেমিক। এরপরই শুরু হয় দাম্পত্য কলহ।

দেবাশিসের অভিযোগ, মেয়ের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জানা সত্ত্বেও কখনই বিষয়টির প্রতিবাদ করেনি পরিবারের সদস্যরা। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি আরো খারাপ হলে সালিশি ডাকা হয়। এতে সাময়িকভাবে মিটেও যায়। কিন্তু তাতেও প্রেমিকের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করেনি ওই বধূ। ফলে পারিবারিক কলহ আরো বাড়তে থাকে।

রবিবার সকালে স্ত্রীকে ডিভোর্স দেয়ার হুমকি দেয় দেবাশিস। এতেই ক্ষেপে যায় ওই বধূর বাবা লক্ষ্মণ ও ভাই গোবিন্দ মণ্ডল। তখন মেয়েকে শাস্তি দেয়ার বদলে ধারালো অস্ত্র নিয়ে কোপায় মিবেশিসকে। এতে দেবাশিষের তিনটি আঙুল কেটে পড়ে যায়। ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় পেট ও পা। খবর পেয়ে প্রতিবেশীরাই ছুটে গিয়ে দেবাশিসকে প্রথমে মহেশাইল ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র নিয়ে যান। তা র শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে তাকে স্থানান্তরিত করা হয় জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভারত পরকীয়া

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.2479 seconds.