• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৮ জুলাই ২০২০ ১৬:০৫:৫৯
  • ০৮ জুলাই ২০২০ ১৬:০৫:৫৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সোলেইমানিকে হত্যার কোনো কারণ দেখাতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র : জাতিসংঘ

ছবি : সংগৃহীত

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের বিমানবন্দরের কাছে ইরানি জেনারেল কাশেম সোলাইমানির গাড়িবহরে ড্রোন হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। ওই হামলায় প্রাণ হারান সোলেইমানিসহ ১০ জন। কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার উদ্দেশ্যেই ওই হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। তবে জাতিসংঘ বলছে, বিনা কারণে কাশেম সোলাইমানিকে হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

জানুয়ারিতে ঘটে যাওয়া ওই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষে জাতিসংঘ বলছে, সোলেইমানি হত্যা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। কাশেম সোলেইমানিকে হত্যার কোনো কারণ দেখাতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। এই হামলার পক্ষে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণও হাজির করতে পারেনি ট্রাম্প প্রশাসন।

কাশেম সোলেইমানিকে হত্যার এই তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করেছেন জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি অ্যাগনেস ক্যালামার্ড। বিচারবহির্ভূত এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবেদনের সারাংশে তিনি উল্লেখ করেছেন, ইরাকের রাজধানী বাগদাদের বিমানবন্দর থেকে কাশেম সোলেইমানি যখন বের হচ্ছিলো তখন যুক্তরাষ্ট্র যে হামলা চালায় সেই হামলার পক্ষে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণও হাজির করতে পারেনি দেশটি।

অ্যাগনেস ক্যালামার্ড ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন, সোলাইমানিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে অস্ত্রবহনকারী ড্রোনের মাধ্যমে। এই হামলার জন্য দোষীদের বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্বাধীনভাবে তদন্ত করে থাকেন ক্যালামার্ড। এর আগে তুরস্কে সৌদি আরবের কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যার তদন্তেও তিনি জড়িত ছিলেন। তিনি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, বিশ্ব একটি কঠিন সময়ের মধ্যে রয়েছে, বিশেষ করে যখন এমন ড্রোন ব্যবহার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.1244 seconds.